ঢাকামঙ্গলবার , ৩১ মে ২০২২
  1. অন্য আকাশ
  2. আইন আদালত
  3. আবোল-তাবোল
  4. উদ্যোক্তা
  5. উপসম্পাদকীয়
  6. এক্সক্লুসিভ
  7. কলাম
  8. ক্যারিয়ার
  9. খেলার মাঠ
  10. গণমাধ্যম
  11. গ্যাজেট
  12. জাতীয়
  13. টাকা-আনা-পাই
  14. দেশ জুড়ে
  15. দেশ পরিবার

নিবারণ রায় পেলেন বসুন্ধরা মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড

অরবিন্দ রায়, পলাশ প্রতিনিধি
মে ৩১, ২০২২ ৭:৩৫ অপরাহ্ণ

সাংবাদিক নিবারন রায়  বসুন্ধরা মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড  পেয়েছেন।


১৯৭২ সাল  থেকে সাংবাদিকতা  শুরু করে আজও করছেন।  তিনি ইত্তেফাকের নরসিংদী প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছেন। তাঁর সুদীর্ঘ ৫০ বছরের সাংবাদিকতার জীবনে প্রথম স্বীকৃতি হিসেবে পেলেন বসুন্ধরা মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড ২০২১।


গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ প্রধান অতিথি হিসেবে নিবারন রায়ের হাতে এ পুরস্কার তুলে দেন। এসময় তাঁকে উত্তরীয় পরিয়ে সম্মাননা ক্রেস্ট, সম্মাননা সনদ ও ১ লক্ষ টাকার চেক তুলে দেওয়া হয়। অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন  বসুন্ধরার চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহান। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান বিচারপতি মো: নিজামুল হক নাসিম ও বসুন্ধরা মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড ২০২১ এর জুরিবোর্ড প্রধান অধ্যাপক ড. মো. গোলাম রহমান। এছাড়া ‘বসুন্ধরা মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড ২০২১’ আহ্বায়ক ও বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীর উপস্থিত ছিলেন।

দেশে অনুসন্ধানী সাংবাদিকতাকে উৎসাহিত করতে প্রথমবারের মতো ‘বসুন্ধরা মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড ২০২১’ আয়োজন করেছে দেশের বসুন্ধরা গ্রুপ। জুরিবোর্ডের বিচারে ৫টি ক্যাটাগরিতে মোট ১১ জন অনুসন্ধানী সাংবাদিক পুরস্কারের জন্য নির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়াও  তৃণমূল সাংবাদিকতায় অবদান রাখার স্বীকৃতিস্বরূপ প্রতিটি জেলা থেকে একজন করে মোট ৬৪ জন গুণী সাংবাদিককে সম্মাননা দেওয়া হয়। অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে নিবারণ চন্দ্র রায় বলেন, ‘জীবনের শেষ প্রান্তে এসে সুদীর্ঘ ৫০ বছরের সাংবাদিকতার স্বীকৃতি পেলাম।


তৃণমূলের মফস্বল সাংবাদিকতার জীবনে এটাই প্রথম ও সেরা সম্মাননা। কৃতজ্ঞতা জানাই বসুন্ধরা গ্রুপ কর্তৃপক্ষকে। পাশাপাশি ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছি জুরিবোর্ডের সদস্যদের। যারা তৃণমূলের সাংবাদিক হিসেবে আমাকে বেছে নিয়েছেন।’


নরসিংদী প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক হিসেবে টানা ২২ বছর দায়িত্ব পালন করেছে।পরে তিনি সভাপতি র দায়িত্ব পালন করেন। ব্যক্তি জীবনে ৩ ছেলে ও ১ মেয়ের জনক তিনি।

সর্বশেষ - আইন আদালত