ঢাকাসোমবার , ১১ এপ্রিল ২০২২
  1. অন্য আকাশ
  2. আইন আদালত
  3. আবোল-তাবোল
  4. উদ্যোক্তা
  5. উপসম্পাদকীয়
  6. এক্সক্লুসিভ
  7. কলাম
  8. ক্যারিয়ার
  9. খেলার মাঠ
  10. গ্যাজেট
  11. জাতীয়
  12. টাকা-আনা-পাই
  13. দেশ জুড়ে
  14. দেশ পরিবার
  15. দেশ ভাবনা

দেবর-ভাবির জাতীয় পার্টি, সমাধান কোথায়?

নিজস্ব প্রতিবেদক
এপ্রিল ১১, ২০২২ ১১:৪১ পূর্বাহ্ণ

আগামী জাতীয় নির্বাচন নিয়ে দুই ধারায় এগোচ্ছে জাতীয় পার্টি। একদিকে আছে বর্তমান চেয়ারম্যান জিএম কাদেরের নেতৃত্বে মূলধারা, অপরদিকে প্রয়াত চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের সাবেক স্ত্রী বিদিশা সিদ্দিক।

বিদিশা বলছেন চমক দেখানোর কথা। তবে এই চমক নিয়ে মাথাব্যথা নেই মূলধারার। দুজনেরই এখন পর্যন্ত মত, সরকারের জোটে না গিয়ে এককভাবে নির্বাচন করার।

জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের মৃত্যুর চৌদ্দ বছর আগেই বিবাহবিচ্ছেদ হয় বিদিশা সিদ্দিকের সঙ্গে। তবে এখন ছেলে এরিক এরশাদের বদৌলতে থাকছেন এরশাদের রেখে যাওয়া প্রেসিডেন্ট পার্কে। অন্যদিকে দলের মূলধারার চেয়ারম্যান হিসেবে আছেন এরশাদের ভাই জিএম কাদের।

 ২০১৪ সালের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের সঙ্গী ছিল জাতীয় পার্টি। মহাজোটের শরিক হয়ে একই সঙ্গে সরকারে ও বিরোধী দলে ছিল দলটি। ২০১৮ নির্বাচনও একসঙ্গে করেছিল জাতীয় পার্টি। একাদশ জাতীয় সংসদে বিরোধী দলের আসনে তারা। আগামী নির্বাচনে দলটির দেবর-ভাবির দ্বন্দ্ব বদলাচ্ছে সমীকরণও।
বর্তমানে এরশাদের ভাই জিএম কাদের দলের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছেন। ৩০০ আসনে প্রার্থী দেওয়ার জন্য সুসংগঠিত করছেন দলকে। অন্যদিকে পিছিয়ে নেই বিদিশাও। এরশাদের চেয়ারে বসে একটি অংশের সমর্থন নিয়ে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ঘোষণা করে দল পুনর্গঠনের চেষ্টা তার।
জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের দেশকে বলেন, ‘আমাদের সংগঠনকে গোছানোর চেষ্টা করছি এবং আমাদের সমর্থক যেন বৃদ্ধি পায়, এ ধরনের কর্মসূচি নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছি।’
অন্যদিকে প্রয়াত হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের সাবেক স্ত্রী বিদিশা সিদ্দিক দেশকে বলেন, ‘আমরা পুনর্গঠন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে জাতীয় পার্টিকে সাজাচ্ছি। সারা বাংলাদেশে প্রায় ৩৬টির মতো কমিটি আমাদের দেওয়া হয়ে গেছে।’
জিএম কাদের বলেন, ‘এখন এই মুহূর্তে আমরা ৩০০ সিটের জন্য আমাদের প্রার্থী বের করা এবং তাদের সেভাবে গড়ে তোলা আমাদের লক্ষ্য। আর বিদিশা সিদ্দিক বলেন, ‘চমক তো আগে থেকে বলা যায় না। একেকটা চমক দেব আপনারা নিশ্চই দেখবেন।’
দল নিয়ে দুজন দুই মেরুতে হলেও এককভাবে আগামী জাতীয় নির্বাচন করা হবে নাকি সরকারের সঙ্গে জোটে যাবে জাতীয় পার্টি–এ নিয়ে মনোভাব ছিল একই।
বিদিশা সিদ্দিক বলেন, ‘১৪ দলের সঙ্গে যুক্ত হব নাকি কার সঙ্গে যুক্ত হব বা একা নির্বাচন করব। তবে আমি মনে করি, আমি একা নির্বাচন করতে চাই।’
জিএম কাদের বলেন, ‘সম্ভাবনা আছে বা নেই, সেটা এখনই বলতে পারব না। যখন নির্বাচনের সময় আসবে, তখনকার পরিস্থিতি-পরিবেশ, আমাদের রাজনীতির অবস্থান সবকিছু বুঝে আমরা একটা সিদ্ধান্ত নেব।’
বিএনপির আন্দোলনের হুঁশিয়ারি ও জাতীয় সরকারের ফর্মুলা পর্যালোচনা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন জিএম কাদের। আর সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবি জানিয়ে বিএনপির নির্বাচনে অংশ নেওয়া উচিত বলে মনে করেন বিদিশা।

সর্বশেষ - সোশ্যাল মিডিয়া