ঢাকাসোমবার , ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২২
  1. অন্য আকাশ
  2. আইন আদালত
  3. আবোল-তাবোল
  4. উদ্যোক্তা
  5. উপসম্পাদকীয়
  6. এক্সক্লুসিভ
  7. কলাম
  8. ক্যারিয়ার
  9. খেলার মাঠ
  10. গণমাধ্যম
  11. গ্যাজেট
  12. জাতীয়
  13. টাকা-আনা-পাই
  14. দেশ জুড়ে
  15. দেশ পরিবার

রাউজানে প্রেমিকাকে হত্যার পরে প্রেমিকের আত্মহত্যা!

এম বেলাল উদ্দিন, রাউজান প্রতিনিধি
ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২২ ২:২০ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রামের রাউজানে প্রেমিকার বিয়ে মেনে নিতে না পেরে প্রেমিকাকে হত্যা করে প্রেমিক নিজেই আত্নহত্যা করার চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটেছে। ওই প্রেমিক যুগলের নাম জয় বড়ুয়া (২৬) ও অন্বেষা চৌধুরী আশামনি (১৯)। রবিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাত ৯টার দিকে উপজেলার পাহাড়তলী ইউনিয়নের মহামুনি গ্রামের ভগবান দারোগা বাড়ির সুব্রত মুৎসুদ্দির বাড়ি থেকে লাশ দুটি উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনা পুরো এলাকাজুড়ে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

নিহত যুগল প্রেমিক মহামুনি গ্রামের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের নিলেন্দু বড়ুয়া নিলুর ছেলে নিহত প্রেমিকা একই গ্রামের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের উদয়ন চৌধুরীর বাড়ির রনজিৎ চৌধুরী বাবলুর মেয়ে।

স্থানীয় সুত্রে জানাযায়, উপজেলার পাহাড়তলী ইউনিয়নে পাশাপাশি গ্রামে যুগল প্রেমিক জয় বড়ুয়া ও প্রমিকা অন্বেষা চৌধুরী বসবাস করতেন। পাশাপাশি পাড়ার হওয়াতে জড়িয়েছে একে অপরের মায়ায়। যাকে বলা হয় ভালোবাসা! সেই ভালোবাসার মানুষটির (অন্বেষার) আগামী ১০ মার্চ অন্য জায়গায় বিয়ে ঠিক করেন তার পরিবার। বিষয়টি জানতে পেরে রাগে ক্ষোভে অভিমানে প্রেমিকাকে নিজের বাড়িতে ডেকে আনেন জয় বড়ুয়া। পরে রাতে চাচা সুব্রত বড়ুয়ার পরিত্যক্ত কাচাঘরে নিয়ে গলায় ছুরিকাঘাত করে প্রিয়তমার মৃত্যু নিশ্চিত করেন জয়। এরপর নিজেও ফাঁসিতে ঝুলে আত্মহত্যা করেন। অন্বেষা এসএসসি পাস করার পর টিউশনি করতেন আর জয় এসএসসি পাসের পর বাবার সাথে পাড়ায় চায়ের দোকানে সহযোগিতা করতেন বলে জানান স্থানীয়রা।

পাহাড়তলী ইউনিয়নের ৭,৮, ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা ইউপি সদস্যা অর্পিতা মুৎসুদ্দি মুন্নি জানান, রাত সাড়ে ৯টার দিকে সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে দেখি চৌকির উপর ছেলের লাশ এবং মাটির উপর গলায় ফাঁস ও ছুরিবিদ্ধ মেয়ের লাশ পড়ে আছে। অন্বেষা বিকাল ৫টার দিকে টিউশনি করতে ঘর হতে বের হন। আগামী ৭ মার্চ অন্বেষা চৌধুরীর অশির্বাদ এবং ১০ মার্চ তার বিবাহ অনুষ্ঠান হওয়ার কথা ছিল।

রাউজান থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল হারুন বলেন, আমরা লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছি। তদন্তের পর বিস্তারিত জানা যাবে।

সর্বশেষ - আইন আদালত