ঢাকাশুক্রবার , ১৯ নভেম্বর ২০২১
  1. অন্য আকাশ
  2. আইন আদালত
  3. আবোল-তাবোল
  4. উদ্যোক্তা
  5. উপসম্পাদকীয়
  6. এক্সক্লুসিভ
  7. কলাম
  8. ক্যারিয়ার
  9. খেলার মাঠ
  10. গ্যাজেট
  11. জাতীয়
  12. টাকা-আনা-পাই
  13. দেশ পরিবার
  14. দেশ ভাবনা
  15. দেশ সাহিত্য

আনোয়ারায় শীতকালীন শাক-সবজি উৎপাদনে কৃষকদের ব্যস্ত সময় পার

আনোয়ারায় শীতকালীন শাক-সবজি উৎপাদনে ব্যস্ত সময় পার করছে কৃষকরা।
আনোয়ারায় শীতকালীন শাক- সবজি চাষে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে স্থানীয় কৃষকেরা। ধান মাড়াই শেষে সবজি উৎপাদনে মনোযোগী হয়েছেন চাষিরা।
সূত্র জানায়, উপজেলার ১১ ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে চাষিরা মুলা, লাল শাক, পালং শাক, বেগুন, টমেটো, ফুল কপি,বাঁধা কপি,গাজর, সিম, লাউ, বরবটি, ঢ়েঁড়স, মিষ্টি কুমড়া, তিত করলা, শলগম, মরিচ, বাটি শাকসহ বিভিন্ন জাতের সবজির আবাদ শুরু করেছেন। বর্ষা শেষে জমির পানি কমে আসতেই এবং ধান মাড়াই শেষে তাঁরা চাষাবাদ শুরু করছেন।
উপজেলা কৃষি কার্যালয় জানায়, উপজেলায় ১৪’শ ২২ হেক্টর জমিতে শীতকালীন সবজি ও ফসলের চাষ করা হয়। এর মধ্যে শুধু শিম ২৫৫ হেক্টরে, টমেটো ৬৫ হেক্টরে, বেগুন ২৫ হেক্টরে,মরিচ ২২৫ হেক্টরে,মিষ্টি কুমড়া ৪৫ হেক্টরে, ডাল ৫০ হেক্টরে, তরমুজ ১৭ হেক্টরে, খিরা ১৯ হেক্টরে ও বাঙ্গি ১০ হেক্টর জমিতে চাষ করা হয়।
শুক্রবার উপজেলার হাইলধর  ইউনিয়নের শঙ্খনদের পাড়ে ফকিরার চরে গিয়ে দেখা গেছে, যেদিকে চোখ যায় সেদিকেই শুধু বীজ তলা আর ছোট-বড় সবজি খেতে চাষী ও দিনমজুররা এসব খেতে এখন পুরোদমে সবজির চারা রোপনের পাশাপাশি বীজ তলাও তৈরি করে যাচ্ছে। সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত পুরুষ, নারী ও শিশু শ্রমিকরা বীজতলা তৈরিতে কাজ করছে। অধিকাংশ জমিতে বীজ বপন করে চারা উৎপাদনের প্রক্রিয়া চলছে।
চাষি আলী আহমদ বলেন, আমরা সবজির চাষ শুরু করেছি। আশা করি সপ্তাহখানেকের মধ্যে বাজারে আসবে শীতকালীন সবজি।
আনোয়ারা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রমজান আলী বলেন, সবজি নিরাপদ উৎপাদনের লক্ষ্যে মাঠ পর্যায়ে কৃষি কর্মকর্তারা খোঁজখবর নিয়ে পরামর্শ ও প্রশিক্ষণ দিচ্ছে চাষীদের।

সর্বশেষ - সোশ্যাল মিডিয়া