ঢাকারবিবার , ১ আগস্ট ২০২১
  1. অন্য আকাশ
  2. আইন আদালত
  3. আবোল-তাবোল
  4. উদ্যোক্তা
  5. উপসম্পাদকীয়
  6. এক্সক্লুসিভ
  7. কলাম
  8. ক্যারিয়ার
  9. খেলার মাঠ
  10. গণমাধ্যম
  11. গ্যাজেট
  12. জাতীয়
  13. টাকা-আনা-পাই
  14. দেশ জুড়ে
  15. দেশ পরিবার

দামুড়হুদায় চিকিৎসার নামে চলছে প্রহসন

dWPKOARWAa
আগস্ট ১, ২০২১ ৭:১২ অপরাহ্ণ


চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ইউনানী চিকিৎসকের চিকিৎসা সেবায় প্রহসনের স্বীকার হচ্ছেন সেবা সাধারন রোগীরা। ইউনানী চিকিৎসক হিসেবে নিয়োগ থাকলেও তিনি অ্যালোপ্যাথিক মেডিসিনের চিকিৎসক হিসেবেই পরিচিত। তাই ইউনানী চিকিৎসা থেকে যেমন বঞ্চিত হচ্ছেন এলাকার জনসাধারন ঠিক তেমনই নিজের অজান্তেই প্রতারনার স্বীকার হচ্ছেন চিকিৎসা সেবা নিতে আসা সাধারণ রোগীরা।



জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ইউনানী মেডিকেল অফিসার হিসেবে কর্মরত আছেন ডা.সোহোরাব হোসেন নামের একজন ইউনানী মেডিকেল অফিসার। তিনি ইউনানী মেডিকেল অফিসার হিসেবে দায়িত্বপ্রাপ্ত হলেও ইউনানী মেডিসিনের চিকিৎসাসেবা না দিয়ে অ্যালোপ্যাথিক মেডিসিনের ডাক্তারদের মতোই অ্যালোপ্যাথিক মেডিসিনের চিকিৎসা সেবা দিয়ে চলেছেন। ইউনানী মেডিকেল অফিসার হিসেবে কর্মরত থাকলেও তার ব্যবস্থাপত্র দেখে কোনভাবেই বোঝার উপায় নেই যে তিনি একজন ইউনানী মেডিকেল অফিসার। ব্যবস্থ্যাপত্রে নামী দামী অ্যালোপ্যাথিক মেডিসিন কোম্পানীর অ্যান্টিবায়োটিক লিখেন তিনি। দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বহির্বিভাগের ৪নং কক্ষটি ইউনানী মেডিকেল অফিসারের জন্য বরাদ্দকৃত।


বিষয়টি নিয়ে উক্ত ইউনানী মেডিকেল অফিসার ডা. সোহোরাব হোসেনকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বেশ রাগান্বিত হয়ে বলেন ‘‘আমার সব ওষুধ লেখারই অনুমোদন রয়েছে। তাছাড়া সকল ইউনানী মেডিকেল অফিসারই সব ওষুধ লিখছে। আমার বেলায় শুধু সমস্যা?’’


অথচ ‘‘বাংলাদেশ ইউনানী ও আয়ুর্বেদিক চিকিৎসা শিক্ষা আইন ২০২০’’ এ উল্লেখিত বিষয়ে ৫ম অধ্যায়ে কোড অব ইউনানী ও আয়ুর্বেদিক এথিক্স এ স্পষ্টভাবে উল্লেখ আছে ‘‘একজন ইউনানী ও আয়ুর্বেদিক চিকিৎসক কোন অবস্থাতেই অন্যকোন চিকিৎসা পদ্ধতির ঔষধ রোগীকে সেবন বা গ্রহন করিবার পরামর্শ দিতে পারিবেন না।’’


এ বিষয়ে দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. ফারহানা ওয়াহিদ তানি বলেন, ‘‘মেডিকেল অফিসার হিসেবে তিনি প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা দেবার জন্য ওটিসি প্রডাক্টগুলোই শুধু লিখতে পারেন। যেহেতু অ্যান্টিবায়োটিক লেখার কোন অনুমতি তার নাই তাই তিনি সেগুলো বিধিসম্মতভাবে লিখতে পারেন না।’’

প্রতিবেদক

সর্বশেষ - আইন আদালত