ঢাকামঙ্গলবার , ২৭ জুলাই ২০২১
  1. অন্য আকাশ
  2. আইন আদালত
  3. আবোল-তাবোল
  4. উদ্যোক্তা
  5. উপসম্পাদকীয়
  6. এক্সক্লুসিভ
  7. কলাম
  8. ক্যারিয়ার
  9. খেলার মাঠ
  10. গণমাধ্যম
  11. গ্যাজেট
  12. জাতীয়
  13. টাকা-আনা-পাই
  14. দেশ জুড়ে
  15. দেশ পরিবার
হদিস নেই আরো চার ট্রলারের

সাগরে ঝড়ের কবলে চার জেলের মৃত্যু

dWPKOARWAa
জুলাই ২৭, ২০২১ ৯:২২ অপরাহ্ণ


গভীর বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরতে গিয়ে ঝড়ের কবলে পড়ে বাঁশখালীর চাম্বল ইউনিয়নের বাংলাবাজার ঘাটের চার জেলের মৃত্যু হয়েছে।


এসময় দুটি ট্রলার ডুবে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। আজ মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) সকালে গভীর সাগরে এসব দুর্ঘটনা ঘটে। এছাড়া আরো চারটি ট্রলার ও তিন জেলের ভাগ্যে কি ঘটেছে জানা যায়নি। অন্যজেলেরা বিভিন্ন ট্রলারে উঠে প্রাণ বাঁচিয়েছে শোনা যাচ্ছে। তবে আগামীকাল বুধবারের মধ্যে সবকিছু নিশ্চিত হওয়া যাবে জানান ট্রলার সংশ্লিষ্টরা।


মৃত্যুরা হলেন মোঃ একরাম (৪৫), মোহাম্মদ আনিছ (৪০) ও মোহাম্মদ আলী(৩৮)। চতুর্থজনের নাম জানাতে পারেনি ট্রলার সংশ্লিষ্টরা। অন্যদিকে এফবি মুসফিক এবং আল্লাহর দান নামের দুটি ট্রলার ডুবে গেছে নিশ্চিত হওয়া গেছে। এসব নিশ্চিত করেন চাম্বল বাংলাবাজার বোট মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ কাশেম।


নিহত জেলে মোঃ একরাম (৪৫) চাম্বল বাংলাবাজার ঘাটের আলী নেওয়াজ চৌধুরীর মালিকানাধীন (নতুন ও নামবিহীন) মাছ ধরার ট্রলারের জেলে ছিলেন। তার বাড়ি কক্সবাজারে জানা গেছে। সে চাম্বল দুই নম্বর ওয়ার্ডে মোহাম্মদ বশরের মেয়ের জামাই ছিল। সেখানে সে থাকত। শ্বশুরবাড়িতেই তার লাশ দাফন করা হয়েছে। তার পরিবারকে দুই লাখ টাকা ক্ষতি পূরণ দেওয়া হয়েছে জানান ট্রলারের মালিক আলী নেওয়াজ চৌধুরী।


অপরদিকে মারা যাওয়া মোহাম্মদ আনিছ (৪০), মোহাম্মদ আলী(৩৮) এবং একই ট্রলারের অজ্ঞাত জেলে চাম্বল বাংলাবাজার ঘাটের মোহাম্মদ ফোরকান ও হেলালের মালিকানাধীন এফবি মায়ের দোয়া ট্রলারের জেলে ছিলেন। চাম্বল বোট মালিক সমিতির হেফাজুল ইসলামের মালিকানাধীন এফবি মুসফিক ট্রলারটি মাছ, জালসহ ডুবে যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে। ট্রলার ডুবে তার প্রায় ২২ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। একইভাবে মোহাম্মদ জব্বার ও নন্না মিয়ার মালিকানাধীন আল্লাহর দান ট্রলারটি নিখোঁজ রয়েছে। এই ট্রলারের অপর তিন জেলেও এখনো নিখোঁজ। তাদের নামও জানা যায়নি।


মোহাম্মদ কেপাতুল্লার মালিকানাধীন মায়ের দোয়া ট্রলারটি এবং মোহাম্মদ ফারুক ও আব্দুল মালেকের মালিকানাধীন এফবি মোরশেদ আলম ট্রলারটি মাঝিমাল্লা সহ নিখোঁজ রয়েছে। এই ট্রলার দুটির কিছু মাঝিমাল্লা অন্য একটি ট্রলারে উঠে প্রাণ রক্ষা করলেও সবার খোঁজ পাওয়া যায়নি। এসব বিষয় নিশ্চিত করেন চাম্বল বাংলাবাজার বোট মালিক সমিতির সভাপতি হেফাজুতুল ইসলাম। অন্যদিকে শেখেরখীল সরকার হাট ফিশারি ঘাটের মোহাম্মদ ইলিয়াসের মালিকানাধীন একটি ট্রলার গত দুইদিন ধরে নিখোঁজ রয়েছে জানায় বাঁশখালী বোট মালিক সমিতির সাধারণ সাম্পাদক আব্দুস শুক্কুর।


এ সব বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সাইদুজ্জামান চৌধুরী বলেন, একজন মারা যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। তবে কয়টি ট্রলার ডুবেছে, কয়জন জেলে নিখোঁজ আছে সেটা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে ছয় জেলে ও ছয়টি ট্রলার নিখোঁজ আছেন শোনা যাচ্ছে।

প্রতিবেদক

সর্বশেষ - আইন আদালত