ঢাকারবিবার , ২৫ জুলাই ২০২১
  1. অন্য আকাশ
  2. আইন আদালত
  3. আবোল-তাবোল
  4. উদ্যোক্তা
  5. উপসম্পাদকীয়
  6. এক্সক্লুসিভ
  7. কলাম
  8. ক্যারিয়ার
  9. খেলার মাঠ
  10. গণমাধ্যম
  11. গ্যাজেট
  12. জাতীয়
  13. টাকা-আনা-পাই
  14. দেশ জুড়ে
  15. দেশ পরিবার

বাঁশখালীতে গৃহবধুকে হত্যার অভিযোগ

মফস্বল সম্পাদক
জুলাই ২৫, ২০২১ ৯:৩৭ অপরাহ্ণ


বাঁশখালীতে আইরিন আক্তার (২১) নামের দুই সন্তানের জননীকে মারধর করে হত্যার যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে শ্বশুরবাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে।



আজ রোববার (২৫ জুলাই) লাশের ময়নাতদন্ত শেষে আইরিনের বাবার বাড়ি সাধনপুর তালুকদার পাড়ায় লাশ দাফন করা হয়েছে সন্ধ্যায়। এ ঘটনায় পুকুরিয়ার চানপুর গ্রামে শ্বশুরবাড়ির লোকজন পলাতক রয়েছে। গত শনিবার দুপুরের দিকে গৃহবধু আইরিন আক্তারের লাশ বাঁশখালীর পাশের উপজেলা আনোয়ারার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ফেলে পালিয়ে যায় শ্বশুরবাড়ির লোকজন।


খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, প্রায় ছয়বছর পূর্বে আইরিন আক্তারের সাথে পুকুরিয়ার চানপুর এলাকার হারুনুর রশীদের (৩০) বিয়ে হয়। তাদের সংসারে পাঁচ বছর ও ছয়মাস বয়সের দুটি ছেলে সন্তান রয়েছে। গৃহবধু আইরিন আক্তারকে যৌতুক সহ বিভিন্ন কারণে প্রায় সময় মারধর করত স্বামী হারুনুর রশীদ (৩০) ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন। এ নিয়ে বেশ কয়েকবার গ্রাম্য শালিস হয়। গত শনিবার রান্না ভালো হয়নি বলে আইরিন আক্তারকে তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন মারধর করে অভিযোগ উঠে। শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে আনোয়ারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তাকে ফেলে চলে যায় শ্বশুরবাড়ির লোকজন। হাসপাতালে আইরিনকে মৃত ঘোষণা করে কর্তব্যরত চিকিৎসক। পরে খবর পেয়ে বাবার বাড়ির লোকজন আইরিন আক্তারকে সাধনপুর তালুকদার পাড়ার নিজ বাড়িতে নিয়ে আসে।


আইরিন আক্তারের ভাবী ডেইজি আক্তার বলেন, ছোটখাট বিষয় নিয়ে আইরিনকে প্রায় সময় মারধর করা হতো। সহ্য করতে না পেরে সে বাবার বাড়িতে চলে আসত। এখন আইরিনের শ্বশুরবাড়ির সবাই পলাতক রয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে পুলিশ আইরিনের লাশ তার বাবার বাড়িতে নিয়ে আসে। আইরিনের শ্বশুরবাড়ির লোকজন নির্দোষ হলে পুলিশ ও আমাদের সামনে আসছেনা কেন? আইরিনের হত্যার বিচার চাই।


বাঁশখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সফিউল কবীর বলেন, লাশের পায়ে আঘাতের চিহ্ন ছিল। মারধরের কারণে মারা গেছে কিনা নিশ্চিত নয়। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পাওয়ার পর সব জানা যাবে। এ বিষয়ে অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।

সর্বশেষ - আইন আদালত