ঢাকাসোমবার , ১৯ জুলাই ২০২১
  1. অন্য আকাশ
  2. আইন আদালত
  3. আবোল-তাবোল
  4. উদ্যোক্তা
  5. উপসম্পাদকীয়
  6. এক্সক্লুসিভ
  7. কলাম
  8. ক্যারিয়ার
  9. খেলার মাঠ
  10. গণমাধ্যম
  11. গ্যাজেট
  12. জাতীয়
  13. টাকা-আনা-পাই
  14. দেশ জুড়ে
  15. দেশ পরিবার

হাসপাতালে স্ত্রীর লাশ রেখে স্বামীর পলায়ন

dWPKOARWAa
জুলাই ১৯, ২০২১ ১২:৪৮ অপরাহ্ণ


সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। স্বামী  অচেতন অবস্থায় হাসপাতালে আনলেও চিকিৎসক মৃত ঘোষনা করার পর স্ত্রীর লাশ হাসপাতালে রেখেই পালিয়ে যায় স্বামী।



রোববার (১৮জুলাই) রাত ৮টার দিকে দক্ষিণ চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার চরম্বা মাইজবিলা ৭নং ওয়ার্ডের পূর্বপাড়া মিস্ত্রীর বর বাড়ীতে এ ঘটনা ঘটে। মারা যাওয়া ঐ গৃহবধুর নাম ফরজানা ইয়াছমিন কলি (২০)। চরম্বা ১নং ওয়ার্ডের আতিয়ার পাড়ার প্রবাসী মোহাম্মদ আজিজ মাস্টারের মেয়ে।


শাশুড়ি রাজিয়া বেগম বাড়ীর টয়লেটে অজ্ঞান অবস্থায় পুত্রবধূকে দেখতে পান। সাথে সাথে চিৎকার দিলে আশপাশ লোকজন এগিয়ে এসে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে আসেন বলে দাবী করলেও কলির মা রিজিয়া বেগমের অভিযোগ, তাঁর মেয়েকে বিয়ের পর থেকে স্বামী নির্যাতন করে আসছিল। তাঁর মেয়েকে স্বামী জিয়াউর রহমান এবং তাঁর মা মিলে শ্বাসরুদ্ধ করে মেরে ফেলেছে।


জানা যায়, আড়াই বছর পুর্বে মাইজবিলা এলাকার মৃত এনায়েত উল্লাহের ছেলে ব্যবসায়ী জিয়াউর রহমানের সাথে কলির বিয়ে হয়। কলি সাত মাসের অন্তঃস্বত্বা ছিল। এদিকে হাসপাতালে লাশ রেখে স্বামী পালিয়ে গেলেও পালানোর সময় শাশুড়ি রাজিয়া বেগম ও সিএনজি চালক সাদেক স্থানীয়রা আটক করা হয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্হল পরিদর্শনে করেন সাতকানিয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাকারিয়া রহমান জিকু, লোহাগাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ জাকের হোসাইন মাহমুদ।

লোহাগাড়া উপজেলা স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডাঃ শেখ মুহাম্মদ ফয়সাল বলেন, হাসপাতালে আসার আগে গৃহবধুর মৃত্যু হয়েছে। তবে, নিহতের গলায় আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে।

প্রতিবেদক

সর্বশেষ - আইন আদালত