1. ayanabirbd@gmail.com : deshadmin :
  2. hr.dailydeshh@gmail.com : Daily Desh : Daily Desh
বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ০৪:৪৬ অপরাহ্ন

৪১ পেরিয়ে ৪২ এ পা রাখবে ইবি

পল্লব আহমেদ সিয়াম, ইবি প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম :: শনিবার, ২১ নভেম্বর, ২০২০

দেশে প্রথম করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয় গত ৮ই মার্চ। করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের আশংকায় বন্ধ করে দেওয়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। তারই ধারাবাহিকতায় গত ১৭ই মার্চ বন্ধ করে দেওয়া হয় ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়। সময় গড়িয়ে নবযৌবন বিদ্যাপীঠের ৪২ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আগামীকাল। কিন্তু কোভিডের কারনে প্রিয় ক্যাম্পাসের নেই কোন সাজসজ্জা। নিরবে আলো ছড়িয়ে যাচ্ছে দক্ষিণ-পশ্চিম অঞ্চলের শ্রেষ্ঠ এ বিদ্যাপিঠ।


দেশের দক্ষিণ-পশ্চিম অঞ্চলের শ্রেষ্ঠ এ বিদ্যাপিঠ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আগামীকাল। ৪১ বছরের গৌরবময় পথচলা শেষে ৪২তম বছরে পা দেবে বিশ্ববিদ্যালয়টি। একুশ শতকের উপযোগী বিশ্বমানের গ্রাজুয়েট ও দক্ষ মানবসম্পদ তৈরির ভিশন নিয়ে এগিয়ে চলেছে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের সর্বোচ্চ এই বিদ্যাপীঠ। নানা চাড়াই উৎরাইয়ের মধ্য দিয়ে ৪২ বছরে পদার্পণ করতে যাচ্ছে স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম সরকারী বিশ্ববিদ্যালয়টি।

বাংলাদেশের মানুষের দীর্ঘ দিনের দাবির প্রেক্ষিতে ১৯৭৬ সালের ১ ডিসেম্বর তৎকালীন সরকার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার ঘোষণা দেন। এটাই ছিল স্বাধীন দেশে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার প্রথম ঘোষণা।

এরপর ১৯৭৭ সালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের তৎকালীন উপাচার্য ও বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. এম এ বারীকে সভাপতি করে সাত সদস্য বিশিষ্ট ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় পরিকল্পনা কমিটি গঠন করা হয়।

পরিকল্পনা কমিটি তিনটি অনুষদ, ১৮টি বিভাগ, তিনটি ইনস্টিটিউট ও একটি স্কুল প্রতিষ্ঠার সুপারিশ করেন।

১৯৭৭ সালে ওআইসির আন্তর্জাতিক ইসলামী শিক্ষা সম্মেলনে বাংলাদেশে একটি আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তখন আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যায়ের পরিকল্পনা নিয়েই তৎকালীন প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেন। ১৯৭৯ সালের ২২ নভেম্বর কুষ্টিয়া-ঝিনাইদহ শহরের মধ্যবর্তী শান্তিডাঙ্গা-দুলালপুরে প্রতিষ্ঠিত হয় দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের শ্রেষ্ঠ এ বিদ্যাপীঠ। সেই থেকে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের উচ্চ শিক্ষা বিস্তারে কাণ্ডারির ভূমিকা পালন করছে স্বাধীন বাংলাদেশে প্রতিষ্ঠিত প্রথম এই উচ্চ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান।

এরপর ১৯৮৩ সালে তৎকালীন রাষ্ট্রপতি হুসেইন মোহাম্মদ এরশাদের এক বিশেষ আদেশে নির্মাণাধীন এ বিশ্ববিদ্যালয়কে গাজীপুরের বোর্ডবাজারে স্থানন্তর করা হয়। পরে ১৯৯২ সালের ২১ নভেম্বর আবারও বর্তমান ক্যাম্পাসে যাত্রাশুরু করে।

বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়ে ৮টি অনুষদ, ৩৪টি বিভাগ, একটি ইনস্টিটিউট এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন ১টি স্কুল রয়েছে। এর অধীনে রয়েছে ১৫ হাজার ৩৮৪ জন শিক্ষার্থী, যাদের মধ্যে ছাত্র ১০ হাজার ২৯১ এবং ছাত্রী ৫ হাজার ৯৩ জন। ৩৯৭ জন শিক্ষক, ৪৫৯ জন কর্মকর্তা, ১৭৭ জন সহায়ক কর্মচারী এবং ১৭৭ জন সাধারণ কর্মচারী।

স্বাধীন দেশের প্রথম সরকারী বিশ্ববিদ্যালয় সত্ত্বেও শিক্ষার্থীদের আবাসন সঙ্কট প্রকট। নেই পর্যাপ্ত হল সুবিধা। মোট হল ৮টি। ৫টি ছাত্রহল এবং ৩টি ছাত্রীহল।

নিয়মিত সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হয় না দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের শ্রেষ্ঠ এ বিদ্যাপীঠে। এ পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে ৪টি সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রথম সমাবর্তন ২৭ এপ্রিল ১৯৯৩ সালে, দ্বিতীয় সমাবর্তন ৫ নভেম্বর ১৯৯৯ সালে, তৃতীয় সমাবর্তন ২৮ মার্চ ২০০২ সালে এবং সর্বশেষ ৪র্থ সমাবর্তন ৭ জানুয়ারি ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিত হয়।

করোনা সংক্রমণ থেকে শিক্ষার্থীদের সুরক্ষার লক্ষ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাস, পরীক্ষা ও হলসমূহ অনির্দিষ্ট কালের জন্য বন্ধ রয়েছে। ভার্চুয়াল শিক্ষা কার্যক্রম অল্পসংখ্যক বিভাগে চলমান রয়েছে। সীমিত আকারে অফিস চালু রাখা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শুরু থেকে এ পর্যন্ত মোট ১২ জন ভিসি দায়িত্ব পালন করেছেন। প্রথম উপাচার্য ছিলেন ড. এ এন এ মমতাজ উদ্দিন চৌধুরী এবং বর্তমানে ১৩ তম ভিসি হিসিবে দায়িত্ব পালন করছেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আব্দুস সালাম।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আব্দুস সালাম বলেন, বাংলাদেশের প্রথম বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের অতীত ঐতিহ্য শুধু সমুন্নত রাখাই নয়, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনাম ও মর্যাদা বৃদ্ধি করতে জ্ঞানচর্চা ও গবেষণায় শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা আরও বেশি করে মনোনিবেশ করবেন ৷

তিনি ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের সকল সদস্যকে ৪২তম ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় দিবসের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ৷

@desh.click এর অনলাইন সাইটে প্রকাশিত কোন কন্টেন্ট, খবর, ভিডিও কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা দন্ডনীয় অপরাধ।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর

@desh.click এর অনলাইন সাইটে প্রকাশিত কোন কন্টেন্ট, খবর, ভিডিও কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা দন্ডনীয় অপরাধ।

বিশ্বে করোনা ভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
৪৫০,৬৪৩
সুস্থ
৩৬৪,৯১৬
মৃত্যু
৬,৪২০
সূত্র: আইইডিসিআর

বিশ্বে

আক্রান্ত
৫৯,৭৫০,৯৮৮
সুস্থ
৩৮,২৬০,৪৮০
মৃত্যু
১,৪০৯,১৬০

নামাজের সময়সূচীঃ

    Dhaka, Bangladesh
    বুধবার, ২৫ নভেম্বর, ২০২০
    ওয়াক্তসময়
    সুবহে সাদিকভোর ৫:০১
    সূর্যোদয়ভোর ৬:২০
    যোহরদুপুর ১১:৪৫
    আছরবিকাল ২:৫০
    মাগরিবসন্ধ্যা ৫:১১
    এশা রাত ৬:৩০

স্বত্ব @২০২০ দেশ

সাইট ডিজাইনঃ টিম দেশ