ঢাকারবিবার , ২৯ আগস্ট ২০২১
  1. অন্য আকাশ
  2. আইন আদালত
  3. আবোল-তাবোল
  4. উদ্যোক্তা
  5. উপসম্পাদকীয়
  6. এক্সক্লুসিভ
  7. কলাম
  8. ক্যারিয়ার
  9. খেলার মাঠ
  10. গ্যাজেট
  11. জাতীয়
  12. টাকা-আনা-পাই
  13. দেশ পরিবার
  14. দেশ ভাবনা
  15. দেশ সাহিত্য

সন্ত্রাসীদের হামলায় গুরুতর আহত মিরসরাই আওয়ামী লীগ নেতা


চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে সন্ত্রাসী হামলায় গুরুতর আহত হয়ে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন এক আওয়ামী লীগ নেতা। স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, হামলাকারীরা হত্যার উদ্দেশ্যেই মারাত্মকভাবে কুপিয়েছেন মীরসরাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক নুর উল্ল্যাহ্ (৪৭) কে। গুরুতর আহত অবস্থায় তিনি চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন বলে জানান তার পুত্র নাঈমুল ইসলাম শুভ।


ঘটনার পর থেকেই মামলার এ মামলার এজাহারভুক্ত আসামী সাইফুল, রেজাউল, আলাউদ্দীন, রাব্বি সহ সকলেই পলাতক রয়েছে বলে জানা যায়।


এ ঘটনায় স্থানীয় জনসাধারণ সহ আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের মাঝে সৃষ্টি হয়েছে তীব্র ক্ষোভ। হামলাকারী সাইফুলের বিরুদ্ধে অস্ত্র মামলা সহ পণ্য খালাসের নামে টাকা আত্মসাৎ ও একাধিক প্রতারণার মামলা রয়েছে বলে জানা যায়। সম্প্রতি সে জেল থেকে বেরিয়ে এসে আবারও অপরাধ ও অপকর্মে লিপ্ত হয়েছে বলে জানান এলাকার স্থানীয় এক বাসিন্দা। চট্টগ্রাম নগরীর দক্ষিণ খুলশী আবাসিক এলাকার ২ নং রোডের ২৯ নং বাড়ি “বন্ধন” নামের একটি বিলাসবহুল ভবনের ৬ তলায় বিশাল এক ফ্ল্যাটে সে তার লালন পালন করা বাহিনী নিয়ে বসবাস করে বলে জানায় আহত নুর উল্লাহর ছেলে শুভ। তিনি আরও জানান, ব্যবসায়িক লেনদেনের পাওনা টাকা ফেরত চাওয়ায় গত সোমবার (২৩ আগস্ট) রাত সাড়ে ৯টায় নিজের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে বাড়ী ফেরার পথে মীরসরাই উপজেলার সাত্তার ভূঁইয়া হাট এলাকায় সাইফুলের নেতুত্বে কয়েকজন সন্ত্রাসী আমার বাবাকে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা করে পালিয়ে যায়। স্থানীয়রা আমার বাবা কে আহতাবস্থায় উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করলে তার শারিরীক অবস্থা আশংকাজনক হতে থাকে। এসময় চিকিৎসকরা তাকে উন্নত চিকিৎসা প্রদানের পরামর্শ দিলে দ্রুত তাকে চট্টগ্রাম মেডেকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।


ঘটনার সুত্রে জানা যায়, সন্ত্রাসীরা নুর উল্ল্যাহর গতিরোধ করে ধারালো অস্ত্রের দ্বারা এলোপাতাড়ি কুপিয়ে পালিয়ে যায়। হামলার ঘটনায় ২৫ শে আগষ্ট মীরসরাই থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে যার নম্বর-১৪। মামলার আসামীরা হলো- সাইফুল ইসলাম (৪০) পিতা হাজী কালাম ড্রাইভার, দুর্গাপুর জোরালগঞ্জ মীরসারাই। রেজাউল (৩০) পিতা আবু ছালেক, ঠিকানা-ঐ, সৈয়দ এনায়েতুর রহমান রাব্বী (৩২) পিতা আব্দুর রহমান সাং পাথরঘাটা, কোতোয়ালী, চট্টগ্রাম। আলাউদ্দিন হায়দার রাজু (৪০) পিতা- আবুল বশর প্রকাশ ফুড বশর, সাং পূর্ব কাটাছরা জোরারগঞ্জ। শাহ আলম, পিতা মৃত শামসুদ্দিন পূর্ব কাটাছরা,জোরারগঞ্জ, মীরসরাই।

আহত নুর উল্ল্যাহর ছেলে নাঈমুল ইসলাম শুভ জানান, আমার বাবা দীর্ঘদিন প্রবাসে ছিল, দেশে ফেরার পর প্রতারক সাইফুল পূর্ব পরিচয়ের সূত্রে ব্যবসায়িক লোভ দেখিয়ে আমার বাবার অর্জিত অর্থ (এক কোটি টাকারও বেশি) হাতিয়ে নেয়। এ টাকা ফেরত চাওয়ায় তার সাথে বাবার বিরোধ সৃষ্টি হয়। টাকা দাবী করায় সাইফুল আমার বাবাকে বিভিন্ন সময় প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে আসছিল। সোমবার রাতে বাবা দোকান থেকে ফেরার সময় সাইফুল তার সন্ত্রাসী দলবল নিয়ে বাবাকে হত্যা করতে হামলা চালায়। আমার বাবা এখন মৃত্যু শয্যায়। আমি সন্ত্রাসী সাইফুল সহ সহযোগিদের গ্রেফতারের জন্য প্রশাসনের প্রতি দাবী জানাই।


এলাকার স্থানীয় বাসিন্দা আব্দুল মান্নান বলেন, কালাম ড্রাইভারের পুত্র সাইফুল অবৈধভাবে বিপুল টাকার মালিক বনে যাওয়ার পর থেকে সাঙ্গপাঙ্গ নিয়ে চলাফেরা করে। তার অবৈধ কার্যক্রমে কেউ বাঁধা হয়ে দাঁড়ালে হুমকি ধমকি সহ সন্ত্রাসী হামলা চালায় তার লালিত বাহিনী। সিএন্ডএফ ব্যবসার নামে বিভিন্ন মানুষ থেকে এবং অবৈধ উপায়ে সে মাত্র ৪/৫ বছরেই বনে যায় শতকোটি টাকার মালিক। সাইফুলের বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম বন্দরে কন্টেইনার থেকে বিভিন্ন আমদানীকারকের মূলবান মালামাল লোপাটের অভিযোগ রয়েছে।


এ ব্যাপারে জোরারগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নূর হোসেন মামুন জানান, নুর উল্ল্যাহকে কুপিয়ে আহত করার খবর পেয়ে পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। তিনি এখন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। এ ঘটনায় থানায় ৫ জনকে আসামী করে একটি হত্যার চেষ্টা মামলা হয়েছে। ঘটনায় অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

সর্বশেষ - সোশ্যাল মিডিয়া