ঢাকাবৃহস্পতিবার , ১ জুলাই ২০২১
  1. অন্য আকাশ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন আদালত
  4. আবোল-তাবোল
  5. উদ্যোক্তা
  6. উপসম্পাদকীয়
  7. এক্সক্লুসিভ
  8. কলাম
  9. ক্যারিয়ার
  10. খেলার মাঠ
  11. গ্যাজেট
  12. জাতীয়
  13. টাকা-আনা-পাই
  14. দেশ পরিবার
  15. দেশ ভাবনা

লকডাউনে বেনাপোল স্থলবন্দর সচল

মফস্বল সম্পাদক
জুলাই ১, ২০২১ ১১:৫৯ অপরাহ্ণ


যশোরের বেনাপোল স্থলবন্দরে সর্বাত্মক লকডাউনের প্রথম দিনে ও সচল রয়েছে আমদানি-রফতানি স্বাভাবিক ছিল। সীমিত পরিসরে পাসপোর্ট যাত্রী যাতায়াত করে। নিত্য প্রয়োজনীয় কাঁচা বাজার মাছের দোকান ছাড়া অন্যসব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে । তবে বেনাপোল বাজারে অতি প্রয়োজনীয় কাজে আসা মানুষর আনাগোনা দেখা গেছে। কাচা বাজার ও মাছ বাজারে আসা মানুষদের মাস্ক ব্যবহার করতে দেখা গেলেও সামাজিক দূরত্ব মানছে না কেউ।


সর্বাত্মক লকডাউনের প্রথম দিন আজ বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) বেনাপোল স্থল বন্দর দিয়ে ভারতের সাথে আমদানি রপ্তানি বাণিজ্য স্বাভাবিক রয়েছে। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সরকারি স্বাস্থ্যবিধি মেনে আমদানি রফতানি কার্যক্রম চলছে।  প্রথম দিনে পুলিশ বিজিবির তৎপরতা চোখে পড়ার মত ছিল। সকাল ১২ টায় সেনাবাহিনীর টহলে আসে বেনাপোল স্থল বন্দর এলাকায়।

 

 

আজ বৃহস্পতিবার  সকাল থেকে বেনাপোল পেট্রাপোল বন্দরে মধ্যে স্বাভাবিক নিয়মে চলছে আমদানি রফতানি বাণিজ্য। সকাল ১১ টা পর্যন্ত সময়ে ভারত থেকে ৪০ ট্রাক আমদানি পন্য নিয়ে বেনাপোল বন্দরে প্রবেশ করেছে। অপর দিকে বাংলাদেশি ৩০ ট্রাক রফতানি পন্য নিয়ে ভারতের পেট্রাপোল বন্দরে প্রবেশ করেছে।এছাড়ও বেনাপোল স্থলবন্দরে পন্য ওঠা নামা ও পন্য খালাস প্রক্রিয়া স্বাভাবিক রয়েছে।

 

 

বেনাপোল বন্দরের উপ-পরিচালক মামুন কবির তরফদার জানান, সরকারিভাবে সর্বাত্মক লকডাউন চললেও বেনাপোল-পেট্রাপোল বন্দরে আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য স্বাভাবিক থাকবে।তবে তা সম্পূর্ন স্বাস্থ্যবিধি মেনে। ভারত থেকে আসা পন্যবাহি ট্রাকের ড্রাইভার ও হেলপারা বন্দরের বাইরে বের হতে পারবে না সেজন্য গেটে আনসার সদস্য ও সিকিউরিটি গার্ড নিয়োজিত রয়েছে।

 

 

যশোর ৪৯ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেঃ কর্নেল সেলিম রেজা  জানান, করোনা সংক্রমণ রোধে সরকার ঘোষিত সর্বাত্মক লকডাউনের প্রথম দিন আজ সকাল থেকে বিজিবির টহল কাজ শুরু হয়েছে। বিধিনিষেধ ভঙ্গ করে যারা বাড়ির বাহিরে আসছে তাদেরকে ফেরত দেওয়া হচ্ছে। প্রয়োজনের সঠিক ব্যাখ্যা দিলে তাদেরকে কাজ মিটিয়ে তাড়াতাড়ি বাড়ি ফেরার পরামর্শ দেয়া হচ্ছে।

 

 

যশোর জেলার অতিরিক্ত ম্যাজিস্ট্রেট কাজী সায়েমুজ্জামান বলেন, সরকার ঘোষিত লকডাউন সবাইকে মানতে হবে। বিনা প্রয়োজনে  বাহিরে বের হলে শাস্তির ও জরিমানা হতে পারে। বন্দর এলাকায় সবাইকে সচেতন করা হচ্ছে। আর ভারতীয় ড্রাইভাররা যাতে বন্দরের বাইরে না যেতে পারে সেজন্য নজরদারি বৃদ্ধি করা হয়েছে। জীবন জীবিকার স্বার্থে বেনাপোল দিয়ে আমদানি রফতানি চালু রয়েছে।

সর্বশেষ - জাতীয়