ঢাকাশনিবার , ১১ সেপ্টেম্বর ২০২১
  1. অন্য আকাশ
  2. আইন আদালত
  3. আবোল-তাবোল
  4. উদ্যোক্তা
  5. উপসম্পাদকীয়
  6. এক্সক্লুসিভ
  7. কলাম
  8. ক্যারিয়ার
  9. খেলার মাঠ
  10. গ্যাজেট
  11. জাতীয়
  12. টাকা-আনা-পাই
  13. দেশ পরিবার
  14. দেশ ভাবনা
  15. দেশ সাহিত্য

রৌমারীতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার প্রস্তুতি

শফিকুল ইসলাম, রৌমারী প্রতিনিধি
সেপ্টেম্বর ১১, ২০২১ ২:২৯ অপরাহ্ণ


প্রায় দুই বছর করোনা মহামারির প্রার্দুভাব কমিয়ে আসার সাথে সাথে সরকার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার নির্দেশ দিয়েছেন।


আগামীকাল ১২ সেপ্টেম্বর রোববার স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রাথমিক, এফতেদায়ী, মাধ্যমিক, দাখিল ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা হবে। এরই প্রেক্ষিতে শিক্ষক, কর্মচারিরা স্বস্ব প্রতিষ্ঠানগুলো পরিস্কার পরিচ্ছন্নতায় ব্যস্ত সময় পার করছেন।


প্রাপ্ত তথ্য সুত্রে জানা গেছে, উপজেলায় উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় ১১ টি, মাধ্যমিক বিদ্যালয় ২৫ টি, দাখিল মাদ্রাসা ১৫ টি ও ১১৫ টি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে। সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ও প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সকল প্রতিষ্ঠান খোলার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানদের।


আজ শনিবার সরেজমিনে উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ঘুরে দেখা গেছে, দীর্ঘ প্রায় ২ বছর প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় প্রতিষ্ঠানের কক্ষের ভিতর ও বাহিরে আবর্জনায় ভরে গেছে। গত ৩ দিন ধরে লোকজন দিয়ে এ সকল প্রতিষ্ঠান পরিস্কার করা হচ্ছে।


শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার কথা শুনে শিক্ষার্থীদের মাঝে এ যেন নতুন আনন্দ ভেসে উঠছে। তারা খুশি হয়ে গতকাল থেকেই তাদের জামাকাপড় ও স্কুলব্যাগ ধুয়ে নিচ্ছে মায়ের কাছ থেকে।একাধীক শিক্ষার্থীর অভিভাবক জানান, অনেক দিন থেকে স্কুল বন্ধ থাকায় আমাদের ছেলে-মেয়ের পড়াশোনা একেবারে বন্ধ হয়ে গেছে। পড়তেও বসেনি। তাই স্কুল খোলার সংবাদ পেয়ে খুবই ভালো লাগছে।


নতুনবন্দর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল জোব্বার বলেন, প্রতিষ্ঠানগুলো খোলার নির্দেশনা পেয়ে সকল শিক্ষার্থীকে স্কুলে আসার জন্য বলা হয়েছে। গত কয়েকদিন থেকেই আমার স্কুল পরিস্কার করা হচ্ছে।


এ বিষয়ে রৌমারী সিজি জামান সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবু হোরায়রা বলেন, দীর্ঘদিন স্কুল বন্ধ থাকায় শ্রেণী কক্ষগুলো ময়লা হয়ে গেছে। আজ তা পরিস্কার করা হচ্ছে। এতে আমার অনেক ভালো লাগছে এবং সংশ্লিষ্ট উদ্ধর্তন কর্তৃপক্ষকে অসংখ্য ধন্যবাদ জানাই।


উপজেলা প্রথমিক শিক্ষা অফিসার নজরুল ইসলাম বলেন, প্রত্যেক প্রধান শিক্ষকের কাছে পত্রের মাধ্যমে বিদ্যালয় খোলার বিষয় জানিয়েছি। প্রধান শিক্ষকদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে সঠিক নিরাপত্তা, স্বাস্থ্যবিধী মেনে প্রতিষ্ঠান চালানোর কথা বলা হয়েছে এবং সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তাগণ প্রতিষ্ঠানগুলি পরিদর্শনে রয়েছেন।

সর্বশেষ - সোশ্যাল মিডিয়া