ঢাকাশনিবার , ১১ সেপ্টেম্বর ২০২১
  1. অন্য আকাশ
  2. আইন আদালত
  3. আবোল-তাবোল
  4. উদ্যোক্তা
  5. উপসম্পাদকীয়
  6. এক্সক্লুসিভ
  7. কলাম
  8. ক্যারিয়ার
  9. খেলার মাঠ
  10. গ্যাজেট
  11. জাতীয়
  12. টাকা-আনা-পাই
  13. দেশ পরিবার
  14. দেশ ভাবনা
  15. দেশ সাহিত্য

ভূমি সেবাকে হাতের মুঠোয় আনতে হবে

মফস্বল সম্পাদক
সেপ্টেম্বর ১১, ২০২১ ১২:০৪ অপরাহ্ণ


বাংলাদেশের ভূমি সেবা বেশ জটিল। রেজিষ্ট্রেশন থেকে শুরু করে কর প্রদান, খারিজ, মিউটেশন, খতিয়ান উত্তোলনসহ নানা সেবার জন্য জনগনের ভোগান্তির শেষ নাই। টাকা খরচ করেও নানা প্রতারনার শিকার হতে হয় সংশ্লিষ্টদের।


এসব বিবেচনা করে বর্তমান সরকার ভূমি সেবাকে জনগনের হাতের মুঠোয় আনতে পুরো ভূমি ব্যবস্থাপনাকে ডিজিটালাইজড করার চেষ্টা করছে। ভূমি মন্ত্রনালয়ের সেবাদানকারী সব দপ্তর ও সংস্থা একই ছাদের নিচে এনে জনগনকে এক জায়গা থেকে সেবা প্রদানের মাধ্যমে ‘ওয়ান-স্টপ সার্ভিস’ নিশ্চিত করতে রাজধানীর তেজগাঁওয়ে ‘ভূমি ভবন’ উদ্বোধন করেন প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা। গত ৮ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি য্ক্তু হয়ে ভূমি ভবন ছাড়াও উপজেলা ও ইউনিয়নের ভূমি অফিস, অনলাইন ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধ কার্যক্রম এবং ভূমি ডেটা ব্যাংকের উদ্বোধন করেন। একযোগে এ অনুষ্ঠান থেকে ৯৯৫টি ইউনিয়ন ভূমি অফিস ও ১২৯টি উপজেরা ভূমি অফিস উদ্বোধন করা হয়।


উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, তাঁর সরকার ২০৪১ সালের মধ্যে ভূমি ব্যবস্থা সম্পূর্ণ ডিজিটালাইজ করার লক্ষ নিয়ে কাজ করছে। কারন মানুষ যেন অযথা হয়রানির শিকার না হয়। হাতের মুঠোয় ভূমি সেবা নিশ্চিত করতে অল-লাইনে খতিয়ান সংগ্রহ, উত্তরাধিকার ক্যালকুলেটর, অন-লাইন ডেটাবেজ সহ ভূমি সেবার সব ক্ষেত্রে অধিকতর ডিজিটাল প্রযুক্তি ব্যবহার করা হচ্ছে। ভূমি ব্যবস্থাপনার সবকিছু অতিজটিল কার্যক্রম সেবা ডিজিটালাইজ করার ফলে সহজ হয়ে উঠবে। জনগন খুব সহজে তাদের ভূমির প্রয়োজনীয় কাগজ পত্র যোগাড় ও সংরক্ষন করতে পারবেন। ফলে জমি নিয়ে বিবাদ কমবে, মারামারি হানাহানি কমবে এবং মামলার সংখ্যা কমে আসবে। দেশের সব নিন্ম আদালতই ভূমির মামলা জটের শিকার।


শেখ হাসিনার সরকার রাষ্ট্র ক্ষমতায় আসার পরেই ভূমি ব্যবস্থাপনা সহজ করার জন্য কাজ শুরু করেন। জনগন সরকারের এ উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে। শুধু তাই নয়, ই-মিউষ্টেশন বাস্তবায়নের স্বীকৃতি স্বরূপ ভূমি মন্ত্রণালয় জাতিসংঘের ‘ইউনাইটেড নেশনস পাবলিক সার্ভিস অ্যাওয়ার্ড-২০২০ অর্জন করেছে। আমরা চাই যত দ্রুততম সময়ের মধ্যে ভূমি ব্যবস্থাপনা ডিজিটালাইজড করা যায়, সে দিকে যত্নবান হওয়া। সারা দেশের ভূমি ব্যবস্থাপনায় শৃংঙ্খলা ফিরে এনে দেশের মানুষ স্বস্থির নি:শ্বাস ফেলবেন। এজন্য প্রধামন্ত্রীকে সাধুবাদ জানানো যেতে পারে।

প্রতিবেদক

সর্বশেষ - সোশ্যাল মিডিয়া