ঢাকাশনিবার , ২৪ জুলাই ২০২১
  1. অন্য আকাশ
  2. আইন আদালত
  3. আবোল-তাবোল
  4. উদ্যোক্তা
  5. উপসম্পাদকীয়
  6. এক্সক্লুসিভ
  7. কলাম
  8. ক্যারিয়ার
  9. খেলার মাঠ
  10. গ্যাজেট
  11. জাতীয়
  12. টাকা-আনা-পাই
  13. দেশ পরিবার
  14. দেশ ভাবনা
  15. দেশ সাহিত্য

বাঁশখালীর জেলের জালে হোয়েল শার্ক

হিমেল বাপ্পা, বাঁশখালী প্রতিনিধি
জুলাই ২৪, ২০২১ ১০:০৫ অপরাহ্ণ


বঙ্গোপসাগরে বাঁশখালীর এক জেলের জালে আবারো ধরা পড়েছে দশ মণ ওজনের হোয়েল শার্ক বা তিমি হাঙ্গর।


আজ শনিবার ( ২৪ জুলাই) ভোর চারটায় গভীর সাগরে মোহাম্মদ ফরিদের এফবি শাহ জব্বারিয়া ট্রলারে কালো রঙের হাঙ্গরটি ধরা পড়ে। বিকেলে দিকে হাঙ্গরটিকে ট্রলারের সাথে বেঁধে সেটি শেখেরখীল সরকার বাজার ঘাটে নিয়ে আসা হয়। ২০১৯ সালের ডিসেম্বর মাসে বাঁশখালীর চাম্বল ফিসারি ঘাটে ২০ মণ ওজনের আরো একটি হোয়েল শার্ক ধরা পড়েছিল।


এ বিষয়ে স্থানীয় বাসিন্দা রিয়ান মোহাম্মদ বখতিয়ার বলেন, গভীর সাগরে মোহাম্মদ ফরিদের এফবি শাহ জব্বারিয়া ট্রলারে হাঙ্গরটি ধরা পড়েছে। আজকে মাছটি তীরে আনা হয়। সেটি বিক্রির জন্য ট্রাকে তোলা হয়েছে।


এফবি শাহ জব্বারিয়া ট্রলারের মালিক মোহাম্মদ ফরিদ বলেন, মাছটি বিক্রি করে দেওয়া হবে। বাঁশখালীতে না হলেও চট্টগ্রাম শহরে এর গ্রাহক রয়েছে। কিনে কি করা হয় সেটি জানিনা। আমরা মূলত ইলিশ ধরতে সাগরে গিয়েছিলাম। সেখানে এই মাছটি জালে ঢুকে যায়।


খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এ প্রজাতির হাঙ্গরের পাখনাগুলোর থাইল্যান্ড, চীনের মতো দেশে ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। পাখনাগুলো দিয়ে স্যুপ তৈরি করা হয়। উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা উম্মুল ফারা বেগম তাজকিরা বলেন, এ প্রজাতির হাঙ্গর গভীর সমুদ্রে থাকে। এরা ভুলে বঙ্গোপসাগরে চলে আসে। তখন জেলেদের জালে আটকে যায়। এসব হাঙ্গর বিরল প্রজাতির। এগুলো মেরে ফেলা ঠিক নয়। এদের পুনরায় সাগরে ছেড়ে দেওয়া উচিত।

সর্বশেষ - সোশ্যাল মিডিয়া