ঢাকাবৃহস্পতিবার , ২৬ আগস্ট ২০২১
  1. অন্য আকাশ
  2. আইন আদালত
  3. আবোল-তাবোল
  4. উদ্যোক্তা
  5. উপসম্পাদকীয়
  6. এক্সক্লুসিভ
  7. কলাম
  8. ক্যারিয়ার
  9. খেলার মাঠ
  10. গ্যাজেট
  11. জাতীয়
  12. টাকা-আনা-পাই
  13. দেশ পরিবার
  14. দেশ ভাবনা
  15. দেশ সাহিত্য

পেকুয়ায় আগুনে বসতঘর ভস্মীভূত

এম দিদারুল করিম, পেকুয়া প্রতিনিধি
আগস্ট ২৬, ২০২১ ৬:০১ অপরাহ্ণ


কক্সবাজারের পেকুয়ায় বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটের আগুনে পুড়ে গেছে এক অসহায় দিনমজুরের বসতঘর। বুধবার দিবাগত রাত আড়াই টার দিকে উপজেলার মগনামা ইউনিয়নের কাটাপাড়ি চরপাড়া সংলগ্ন এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।



পুড়ে যাওয়া ওই বসতঘরের মালিক মো.মুবিন। তিনি উপজেলার মগনামা ইউনিয়নের মরিচ্যাদিয়া এলাকার নুর কাদেরের ছেলে। পেশায় একজন দিনমজুর। কোন রকম দিনমজুরি কাজ করে দুবেলা খেয়ে না খেয়ে জীবিকা নির্বাহ করে।


ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী মুবিনের স্ত্রী রোজিনা আক্তার বলেন, মধ্যরাতে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আমাদের বসতঘরে আগুনের সূত্রপাত ঘটে। আগুনের উপস্থিতি টের পেয়ে আমার স্বামী মুবিনের ঘুম ভাঙে। তাঁর চেচামেচিতে আমার ভাঙে। ততক্ষণে বাড়ির চারদিকে আগুন লেগে গেছে। কোনমতে বাচ্চাদের নিয়ে আমি বেরিয়ে পড়ি। কয়েক মিনিটের মাথায় আমাদের বেঁচে থাকার একমাত্র শেষ সম্বল বসতঘরটি পুড়ে বিলীন হয়ে যায়। ফায়ার সার্ভিসের দমকল বাহিনীর সদস্যরা পৌঁছে আগুন কিছু নিয়ন্ত্রণে আসে।


বাড়ির মালিক মুবিন বলেন, ৪/৫ বছর আগে মগনামা ইউনিয়নের মরিচ্যাদিয়া থেকে পরিবার নিয়ে এখানে এসে বসতি শুরু করি। আগুনে ঘরের সবকিছু পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। কিছুই রক্ষা করতে পারিনি। নগদ টাকা ও আসবাব মিলিয়ে প্রায় চার লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।


প্রতিবেশী সূত্রে জানা যায় , বাইরে চেচামেচির শব্দে ঘর থেকে বেরিয়ে দেখি মুবিনের ঘর জ্বলতেছে। বৈদ্যুতিক আগুন লাগার কারণে মূহুর্তের মধ্যেই তাঁর বসতঘরটি পুড়ে যায়। স্থানীয় লোকজন শত চেষ্টা করার পরও মুবিনের শেষ সম্বলটি রক্ষা করতে পারেনি।


ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স পেকুয়া স্টেশনের (ভারপ্রাপ্ত) কর্মকর্তা লিটন বড়ুয়া বলেন, রাত আড়াইটার দিকে বসতঘরে আগুন লাগার খবর পেয়ে খুব দ্রুতই আমাদের দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে। বৈদ্যুতিক আগুন হওয়াতে অতিদ্রুত আগুন চারপাশে ছড়িয়ে পড়ে। তবুও আমাদের ইউনিট আগুন কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়েছে।

সর্বশেষ - সোশ্যাল মিডিয়া