ঢাকাশনিবার , ১০ জুলাই ২০২১
  1. অন্য আকাশ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন আদালত
  4. আবোল-তাবোল
  5. উদ্যোক্তা
  6. উপসম্পাদকীয়
  7. এক্সক্লুসিভ
  8. কলাম
  9. ক্যারিয়ার
  10. খেলার মাঠ
  11. গ্যাজেট
  12. জাতীয়
  13. টাকা-আনা-পাই
  14. দেশ পরিবার
  15. দেশ ভাবনা

পল্লী চিকিৎসকের ভুল চিকিৎসায় কলেজ শিক্ষার্থীর মৃত্যু

রুবেল আহমেদ, আখাউড়া প্রতিনিধি
জুলাই ১০, ২০২১ ১২:০৩ অপরাহ্ণ


ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলার ধরখার ইউনিয়নে গ্রাম্য ডাক্তারের ভূল চিকিৎসায় অয়ন ভূঁইয়া (২২) নামের এক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মারা যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে।


শুক্রবার (৯ জুলাই) রাত সাড়ে ১০টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের ডায়রিয়া বিভাগে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। ওই শিক্ষার্থী উপজেলার ধরখার ইউনিয়নের রাণীখার গ্রামের আমানউল্লাহ ভূইয়ার বড় ছেলে। সে ইউনিভার্সিটি অব ব্রাহ্মণবাড়িয়ার প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন।

 

অয়নের ভগ্নিপতি বিল্লাল হোসেন বলেন, বৃহস্পতিবার (৮ জুলাই) বিকেল থেকে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে বাড়িতে চিকিৎসা করা হয়েছিল । শুক্রবার রাতে তার শারিরীক অবস্থার অবনতি হলে রানীখার গ্রামের গ্রাম্য চিকিৎসক হুমায়ন কবিরের কাছে তাকে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে গ্রাম্য চিকিৎসক অয়নকে সোডিয়াম স্যালাইন ও উরাডক্স নামে একটি ইনজেকশন পোশ করেন। ইনজেকশন দেয়ার কিছুক্ষণ পরেই তার খিঁচুনী হয় এবং নাক ও মুখ দিয়ে লালা বের হতে থাকে। পরে তাকে দ্রুত ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দেওয়া পর ডায়রিয়া বিভাগে অয়ন মারা যায়।

 

হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক নাজমুল হক বলেন, খিচুনি অবস্থায় অয়নকে হাসপাতালে আনা হয়েছিল। অবস্থা গুরুতর হওয়ার কারণে তাকে ঢাকা পাঠানোর কথা বলা হয়। এরই মধ্যে অয়ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। ধারনা করা হচ্ছে, অয়নকে যে ইনজেক্শন দেয়া হয়েছে, তার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ায় তার মৃত্যু হয়েছে।

 

আখাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান জানান, হাসপাতাল সূত্রে জেনেছি এক শিক্ষার্থী ডায়রিয়া হয়ে মারা গেছে৷ পল্লী চিকিৎসকের ভুল ওষুধের কারনে ওই শিক্ষার্থী মারা গেছেন কিনা এধরনের কোন অভিযোগ পাইনি। তবে খোঁজ নিয়ে পরবর্তীতে বিস্তারিত জানানো হবে।

সর্বশেষ - জাতীয়