ঢাকাবুধবার , ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১
  1. অন্য আকাশ
  2. আইন আদালত
  3. আবোল-তাবোল
  4. উদ্যোক্তা
  5. উপসম্পাদকীয়
  6. এক্সক্লুসিভ
  7. কলাম
  8. ক্যারিয়ার
  9. খেলার মাঠ
  10. গ্যাজেট
  11. জাতীয়
  12. টাকা-আনা-পাই
  13. দেশ পরিবার
  14. দেশ ভাবনা
  15. দেশ সাহিত্য

পরীর পাহাড়ে অবৈধ স্থাপনা ও ভবন নির্মাণ বন্ধের নির্দেশ

তৌহিদুর রহমান, স্টাফ রিপোর্টার চট্টগ্রাম
সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২১ ৪:৫০ অপরাহ্ণ


চট্টগ্রামের ঐতিহাসিক পরীর পাহাড়ে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ ও নতুন ভবন নির্মাণ বন্ধে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ে চিঠি দিয়েছেন জেলা প্রশাসক। জেলা প্রশাসন ও আইনজীবী সমিতি তা নিয়ে বিরোধ চরমে গিয়ে পৌছেছে। তা নিরসনে জেলা প্রশাসনের চিঠির পরিপ্রেক্ষিত পরীর পাহাড়ে অবৈধ স্থাপনা, ঝুঁকিপূর্ণ ভবন উচ্ছেদ ও নতুন ভবন নির্মাণ সংক্রান্ত প্রস্তাব মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে প্রধানমন্ত্রীর কাছে উপস্থাপন করা হয়, এই ক্ষেত্রে পরীর পাহাড়ে নতুন করে স্থাপনা নির্মাণ না করতে প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনা দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক।


গত রোববার ১২সেপ্টেম্বর মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের মাঠ প্রশাসন সংযোগ অধিশাখা থেকে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা কয়েকটি মন্ত্রণালয়ে চিঠি দিয়ে জানানো হয়।এই বিষয়ে ব্যবস্থাগ্রহণ ও এর বাস্তবায়ন অগ্রগতি মন্ত্রিপরিষদ বিভাগকে জানাতে বলা হয়েছে।


মন্ত্রী পরিষদ বিভাগের গোপনীয় প্রস্তাবে বলা হয়েছে, ‘চট্টগ্রাম নগরের কেন্দ্রস্থলে পাহাড় চূড়ায় প্রশাসনিক প্রাণকেন্দ্র চট্টগ্রাম কোর্ট বিল্ডিং অবস্থিত। এ অংশে রয়েছে বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, জেলা ও দায়রা জজ আদালতসহ সর্বমোট ৭১টি আদালত। জেলা প্রশাসকের নামে এখানে সরকারের ১ নম্বর খাস খতিয়ানভুক্ত ১১.৭২ একর জায়গা রয়েছে। সরকারি ভবনের বাইরে ১ নম্বর খাস খতিয়ানভুক্ত জায়গায় চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতি পাহাড় কেটে ৫টি ঝুঁকিপূর্ণ বহুতল ভবন নির্মাণ করেছে। এসব স্থাপনাকে পাহাড় ধস, ভূমিকম্প, অগ্নিকাণ্ড ইত্যাদির জন্য অতি ঝুঁকিপূর্ণ স্থাপনা হিসেবে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স কর্তৃপক্ষ চিহ্নিত করেছে। সম্প্রতি চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতি ‘বঙ্গবন্ধু আইনজীবী ভবন’ ও ‘একুশে আইনজীবী ভবন’ নামক দুইটি ১২তলা বিশিষ্ট ভবন নির্মাণের জন্য দরপত্র আহ্বান করে এবং ৬০০টি চেম্বার বরাদ্দ দিচ্ছে’।

এ বিষয়ে চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মমিনুর রহমান দেশ’কে জানান, পরীর পাহাড়ে আর কোনো স্থাপনা যেন না হয় সে বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনা দিয়েছেন। গত ১৩ই সেপ্টেম্বর আইন ও বিচার বিভাগ, পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয় এবং ভূমি মন্ত্রণালয়,সংশ্লিষ্টবিভাগ ও মন্ত্রণালয়সমূহকে প্রধানমন্ত্রীর এই নির্দেশনার চিঠি দিয়েছেন জানিয়ে জেলা প্রশাসক আরো জানান, অবৈধ স্থাপনা অপসারণের জন্য সিডিএ তালিকা করে আমাদের দিবে, যেহেতু সিডিএ ভবনের অনুমতি দেন এরপর জেলা প্রশাসন উচ্ছেদ নোটিশ জারী করে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে ব্যবস্থা নিবে।


জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি মোহাম্মদ এনামুল হক বলেন, আদালত ভবনের সঙ্গে গড়ে ওঠা আইনজীবী ভবনগুলোর অনুমোদন রয়েছে। বিভিন্ন স্থাপনা উচ্ছেদের প্রস্তাবনার বিষয়ে কেউ আমাদের জানায়নি।

প্রসঙ্গত, ১৩০ বছরের ঐতিহ্য সমৃদ্ধ পরীর পাহাড়ে আইনজীবীদের জন্য দু’টি নতুন ভবন নির্মাণ করা নিয়ে মুখোমুখি অবস্থানে যায় চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন ও আইনজীবী সমিতি। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পরীর পাহাড় রক্ষায় গণমাধ্যমে বিজ্ঞাপন প্রকাশ করা হয়। এ ঘটনায় গত ৮ সেপ্টেম্বর আইনজীবী সমিতি সাধারণ সভা করে। দু’পক্ষের দ্বন্দ্বের মধ্যেই চট্টগ্রাম ওয়াসা, বিদ্যুৎ বিভাগ ও কর্ণফুলী গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি সহ ১৪টি সেবা সংস্থার কাছে চিঠি দেয় জেলা প্রশাসন।

সর্বশেষ - সোশ্যাল মিডিয়া