ঢাকামঙ্গলবার , ১০ আগস্ট ২০২১
  1. অন্য আকাশ
  2. আইন আদালত
  3. আবোল-তাবোল
  4. উদ্যোক্তা
  5. উপসম্পাদকীয়
  6. এক্সক্লুসিভ
  7. কলাম
  8. ক্যারিয়ার
  9. খেলার মাঠ
  10. গ্যাজেট
  11. জাতীয়
  12. টাকা-আনা-পাই
  13. দেশ পরিবার
  14. দেশ ভাবনা
  15. দেশ সাহিত্য

পরীমণি ও সাকলায়েনের নতুন ভিডিও ফাঁস (ভিডিওসহ)

নিজস্ব প্রতিবেদক
আগস্ট ১০, ২০২১ ১০:৩৫ অপরাহ্ণ

পরীমণিকে নিয়ে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) গুলশান বিভাগের অতিরিক্ত উপ কমিশনার (এডিসি) গোলাম সাকলায়েন তাঁর সরকারি ফ্ল্যাটে অবস্থান করেন বলে অভিযোগ উঠেছিল। ওই দিনের ঘটনার একটি সিসি ক্যামেরার ফুটেজ ফাঁস হয়েছে। এর পর জল কম গড়ায়নি। কিন্তু এবার বোমা ফাটিয়েছে সোস্যাল মিডিয়ার একটি ইউটিউব চ্যানেল।

পরীমণির সঙ্গে সম্পর্কের বিষয় সামনে আসার পর দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে সাকলায়েনকে। সাকলায়েনের বিরুদ্ধে উঠা অভিযোগের সত্যতা জানতে পুলিশ সদর দপ্তর থেকে তিন সদেস্যর একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

আজ পরী-সাকলায়েনের আর একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। একটি ইউটিউব চ্যানেলে এই ভিডিওটি ফাঁস করা হয়। মঙ্গলবার (১০ আগস্ট) সন্ধ্যার পর ইউটিউব ও ফেসবুকে ভিডিওটি ছাড়া হয়। ভিডিওর ক্যাপশনে বলা হয়, ‘পরীমনি ও পুলিশ কর্মকর্তা সাকলাইনের গোপন ভিডিও!

ভিডিওটিতে দেখা যায়, সাবেক ডিবি কর্মকর্তা সাকলায়েন একটি কেক পরীকে সঙ্গে নিয়ে কেক কাটছেন। পরে পরীমণি তাকে কেকটি খাইয়ে দেয়। কেক কাটার পর পরীমণি তাকে চুম্বনও করেছেন।

গেল ১ আগস্ট রাত ৮টার দিকে নায়িকা পরীমনিকে নিয়ে নিজ বাসায় অবস্থান করেন ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের এডিসি গোলাম সাকলায়েন। ওই দিনের ঘটনার সিসি ক্যামেরার ফুটেজ ফাঁস হয়েছে।

ফুটেজে দেখা গেছে, রাত ৮টার দিকে রাজারবাগের মধুমতি ভবনের সামনে থামে পরী মণির হ্যারিয়ার গাড়ি। ওই ভবনের ১০ তলায় সাকলায়েনের সরকারি ফ্ল্যাট। সাকলায়েন নিজে নেমে এসে রিসিভ করেন পরীমণিকে। এর কিছুক্ষণ পর সাকলায়েনের বাসায় প্রবেশ করেন পরীমণির খালাতো বোন ও তার স্বামী। পরে রাত ২টার দিকে পরী মণিসহ তিনজনই বের হয়ে যান বাসা থেকে।

পুলিশের একটি সূত্র জানায়, পরীমণির সঙ্গে এডিসি গোলাম সাকলায়েনের পরিচয় হয় গেল জুন মাসে। ১৩ জুন উত্তরা বোট ক্লাবে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে ব্যবসায়ী নাসির ইউ মাহমুদের বিরুদ্ধে মামলা করেন পরীমণি।

পরদিন উত্তরা থেকে নাসিরকে গ্রেপ্তার করে গোয়েন্দা পুলিশের গুলশান বিভাগ। ওই সময় পরী মণিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকা হয় গোয়েন্দা কার্যালয়ে। তখনই পরীর সঙ্গে প্রথম পরিচয় সাকলায়েনের। সাকলায়েন ৩০তম বিসিএসের একজন মেধাবী কর্মকর্তা।

সর্বশেষ - সোশ্যাল মিডিয়া