ঢাকারবিবার , ৫ সেপ্টেম্বর ২০২১
  1. অন্য আকাশ
  2. আইন আদালত
  3. আবোল-তাবোল
  4. উদ্যোক্তা
  5. উপসম্পাদকীয়
  6. এক্সক্লুসিভ
  7. কলাম
  8. ক্যারিয়ার
  9. খেলার মাঠ
  10. গ্যাজেট
  11. জাতীয়
  12. টাকা-আনা-পাই
  13. দেশ পরিবার
  14. দেশ ভাবনা
  15. দেশ সাহিত্য

নিউ বসুন্ধরা রিয়েল এস্টেটের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবারও কারাগারে

মোঃ কামরুজ্জামান, বাগেরহাট প্রতিনিধি
সেপ্টেম্বর ৫, ২০২১ ৬:৪৯ অপরাহ্ণ


বাগেরহাটে নিউ বসুন্ধরা রিয়েল এস্টেটের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মান্নান আবার ও কারাগারে। বাগেরহাটে দুদকের মামলায় নিউ বসুন্ধরা রিয়েল এস্টেটের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আ. মান্নান তালুকদারকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।



আজ রোববার দুপুরে বাগেরহাট চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্টেট আদালতে আত্মসমর্পণ করে বাগেরহাট জেলা প্রশাসনের সাবেক উমেদার আ. মান্নান জামিনের আবেদন করলে বিচারক স্বপন কুমার সরকার জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে করাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।


এর আগে গত ৩ জুন সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন ছয় বিচারকের আপিল বেঞ্চ হাইকোর্টের দেয়া উমেদার মান্নানের জামিন স্থগিত করে দুই সপ্তারের মধ্যে তাকে আদালতে আত্মসমর্পণের আদেশ দেন। আজ দুপুরে বাগেরহাট চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্টেট আদালতে উসস্থিত হয়ে জানান, করোনা লকডাউনের কারনে আদালত বন্ধ থাকায় নির্ধারিত সময়ের মধ্যে তিনি আদারতে আত্মসমর্পণ করতে পারেননি। জামিনের আবেদন জানালে বিচারক জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।


এরআগে ২০১৮ সালের ৩০ মে বাগেরহাট মডেল থানায় হায়হায় কোম্পানী নিউ বসুন্ধরা রিয়েল এস্টেটের এমডি আ. মান্নান তালুকদার ও চেয়ারম্যান আনিসুর রহমানের বিরুদ্ধে ১১০ কোটি ৩১ লাখ ৯ হাজার ১৩৫ টাকা ৫৮ পয়সা অবৈধ সম্পদ অর্জন, অপরাধলব্ধ আয় স্থানান্তর, রূপান্তর ও হস্তান্তরের অভিযোগে মামলা করে দুদক। সেই মামলায় হাইকোর্ট উমেদার মান্নানকে জামিন দেয়।


বাগেরহাট দুদকের আইনজীবী এ্যাডভোকেট মিলন কুমার ব্যানার্জী জানান, বাগেরহাটে নিউ বসুন্ধরা রিয়েল এস্টেট নামে একটি হায়হায় কোম্পানী খুলে টাকা আমানতে উচ্চ সুদের প্রলোভন দেখিয়ে দক্ষিণাঞ্চলের হাজার-হাজার মানুষের কাছ থেকে শত-শত কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে দ্রুত ‘উমেদার থেকে জমিদার’ বনে যায় বাগেরহাট জেলা প্রশাসনের সাবেক উমেদার আ. মান্নান। রবিবার দুপুরে বাগেরহাট চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্টেট আদালতে আত্মসমর্পণ করে ফের জামিনের আবেদন করলে বিচারক উমেদার আ. মান্নানের জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে করাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

সর্বশেষ - সোশ্যাল মিডিয়া