ঢাকাশনিবার , ২৮ আগস্ট ২০২১
  1. অন্য আকাশ
  2. আইন আদালত
  3. আবোল-তাবোল
  4. উদ্যোক্তা
  5. উপসম্পাদকীয়
  6. এক্সক্লুসিভ
  7. কলাম
  8. ক্যারিয়ার
  9. খেলার মাঠ
  10. গ্যাজেট
  11. জাতীয়
  12. টাকা-আনা-পাই
  13. দেশ পরিবার
  14. দেশ ভাবনা
  15. দেশ সাহিত্য

চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের কমিটির রুপরেখা ৩১ আগস্ট


চার বছরের মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটি দিয়ে চলছে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ। সিটি নির্বাচনের পরই মহানগর আওয়ামী লীগের সম্মেলন ও নতুন নেতৃত্ব নির্বাচনের কথা দলের কেন্দ্রীয় পর্যায় থেকে জানানো হলেও কিন্তু এখনো পর্যন্ত বিষয়টি নিয়ে কোন ধরনের ইতিবাচক ফলাফল আসেনি।



তবে আশার কথা হলো আগস্ট শেষ হলেই সম্মেলন নিয়ে তৎপর হবে চট্টগ্রাম নগর আওয়ামী লীগ।এই লক্ষ্যে আগামী ৩১ আগস্ট সংগঠনটির কার্যনির্বাহী কমিটির সভা ডেকেছে। সভা থেকেই ইউনিট এবং ওয়ার্ড পর্যায়ে সম্মেলনের রূপরেখার বিষয়ে নির্দেশনা আসতে পারে।


চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি, মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী দেশকে জানান ৩১ তারিখ কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় সবকিছুর রুপরেখা নিয়ে আলোচনা হবে। বিভেদ-বিভক্তির কারণে চট্টগ্রাম মহানগর কমিটি গঠনের বিষয়টি সব সময়ই আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে আলোচিত। চট্টগ্রাম নগর কমিটির নেতা নির্বাচন নিয়ে এখন দুটি বিষয় আলোচিত হচ্ছে। বর্তমান সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীন কি একই পদে বহাল থাকছেন? চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের বিদায়ী প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন কি বড় পদ পাচ্ছেন? বর্তমান সিটি মেয়র এম রেজাউল করিম চৌধুরী কি নগরের রাজনীতির অভিবাবক হয়ে উঠবেন? সঙ্গে আরেকটি প্রশ্ন বড় হয়ে উঠেছে কমিটিতে প্রয়াত মেয়র এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরীর অনুসারীদের কর্তৃত্ব থাকবে নাকি বিপরীত ধারা শক্তিশালী হবে!
এ বিষয়ে জানতে চাইলে নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ.জ.ম নাছির উদ্দিন দেশকে জানান, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের নির্দেশ অনুসারে নগর আওয়ামী লীগ সম্মেলনের প্রস্তুতি গ্রহণ করে। কিন্তু করোনা মহামারির কারণে কঠোর লকডাউন শুরু হওয়ায় সাংগঠনিক কার্যক্রম চালানো যায়নি। তবে মানবিক কার্যক্রম চলছে। এরপর শোকের মাস আগস্ট শুরু হওয়ায় কোন সাংগঠনিক কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়নি। এখন শোকের মাস শেষ হতে চলেছে। ৩১ আগস্ট কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় সাংগঠনিক সিদ্ধান্ত আসবে। তবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সিদ্ধান্ত সব সময় মাথা পেতে নিবো আমি।


নগর যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ছাত্রলীগসহ অঙ্গ সংগঠনসমূহের কমিটি মেয়াদ উত্তীর্ণ যাওয়ায় এসব অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনে যারা গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করছেন তারাও এখন আওয়ামী লীগ করতে চান। তারাও এখন পদ প্রত্যাশীদের প্রতিযোগিতায় সামিল হচ্ছেন। অপরদিকে, দীর্ঘদিন ধরে নগর আওয়ামী লীগের রাজনীতি করেন কিন্তু তাদের প্রত্যাশা ও যোগ্যতা অনুযায়ী পদ পাননি এমন নেতার সংখ্যাও নেহাত কম নয়। এসব কারণে আগামী সম্মেলন নগর আওয়ামী লীগের বর্তমান কমিটির জন্য এক কঠিন পরীক্ষা হয়ে দাঁড়াবে। বর্তমান কমিটির ছয় সহ সভাপতিই এবার সভাপতি পদের দাবিদার।


নগর আওয়ামী লীগের উপ প্রচার সম্পাদক মো. শহীদুল আলম বলেন, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজে এসে যে নির্দেশনা দিয়েছিলেন তার প্রেক্ষিতে সাংগঠনিক কার্যক্রম শুরু করা হচ্ছে। সেপ্টেম্বর মাসে সদস্য সংগ্রহ, অক্টোবরে ইউনিট পর্যায়ে সম্মেলন, নভেম্বরে ওয়ার্ড পর্যায়ে এবং ডিসেম্বরের মধ্যে থানা পর্যায়ে সম্মেলন সম্পন্ন করা হবে। এরপর মহানগর আওয়ামী লীগের সম্মেলনের তারিখ – দলের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যেদিন দেবেন, সেদিন সম্মেলন হবে।

সর্বশেষ - সোশ্যাল মিডিয়া