ঢাকাশুক্রবার , ২ জুলাই ২০২১
  1. অন্য আকাশ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন আদালত
  4. আবোল-তাবোল
  5. উদ্যোক্তা
  6. উপসম্পাদকীয়
  7. এক্সক্লুসিভ
  8. কলাম
  9. ক্যারিয়ার
  10. খেলার মাঠ
  11. গ্যাজেট
  12. জাতীয়
  13. টাকা-আনা-পাই
  14. দেশ পরিবার
  15. দেশ ভাবনা
করোনা পরীক্ষা বন্ধ তিনদিন

খুলনা বিভাগে সর্বোচ্চ মৃত্যু ৩৯ জন

সুনীল কুমার দাস, ব্যুরো প্রধান (খুলনা)
জুলাই ২, ২০২১ ১২:৩৪ পূর্বাহ্ণ


খুলনা বিভাগে করোনায় মৃত্যুর রেকর্ড গড়ছে প্রতিদিনই। আজ বৃহষ্পতিবার (১ জুলাই) পূর্বের রেকর্ড মৃত্যুর সংখ্যা ছাড়িয়ে একদিনে সর্বোচ্চ ৩৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর আগে একদিনে বিভাগের ১০ জেলায় মৃত্যুর রের্কড ছিল ৩২জন। একই সাথে উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যাও। আজ বৃহষ্পতিবার খুলনা বিভাগে পরীক্ষায় আক্রান্ত হয়েছে এক হাজার ২৪৫ জন। এ নিয়ে খুলনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাড়িয়েছে ৫৭ হাজার ৫২০ জন।


গত বুধবার (৩০ জুন) খুলনায় আক্রান্ত হয়েছিল ১ হাজার ২৭৭ জন। খুলনা মহানগরী ও জেলাসহ বিভাগের সবগুলো জেলায় চলছে কঠোর লকডাউন। তারপরেও থামছে না মৃত্যুর এ মিছিল। কোনভাবেই নিয়ন্ত্রনে আসছে না আক্রান্তের হারও।

এদিকে, খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাব এ করোনা পরীক্ষা বন্ধ হয়ে গেছে। আগামী তিনদিন ল্যাব পুনরায় চালু হতে সময় লাগবে বলে জানিয়েছেন খুলনা মেডিকেল কলেজের ভাইস প্রিন্সিপাল ডা: মেহেদী নেওয়াজ। এতে খুলনার করোনা রোগী ও সাধারন মানুষের মধ্যে আতংকের সৃষ্টি হয়েছে।

বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালকের দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে খুলনা বিভাগে মৃত্যু হয়েছে ৩৯ জনের এবং এক হাজার ২৪৫ জনের শরীরে করোনার পজিটিভ পাওয়া গেছে। এসময়ে সর্বাধিক মৃত্যু হয়েছে খুলনা জেলা ও মহানগরীতে ৮ জন। গত বুধবার (৩০ জুন) সকাল ৮টা থেকে আজ বৃহষ্পতিবার (১ জুলাই) সকাল ৮টা পর্যন্ত খুলনার তিন হাসপাতালে ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে খুলনা মেডিকেলের করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে বাগেরহাট সদরের অমিত চক্রবর্তী, যশোরের সুচিত্রা রানী, খুলনার হরিনটানার সাইফুল হক,লবনচরার আনোয়ারা বেগম, পাইকগাছার নজরুল ইসলামসহ ৬জন, খুলনা জেনারেল হাসপাতালে বাগেরহাটের রামপালের তিমির ঘোষ ও বেসরকারী গাজী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে বাগেরহাটের মংলার বিপ্লব মন্ডল চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু বরন করেছেন। এনিয়ে খুলনা জেলা ও মহানগরীতে এ পর্যন্ত করোনায় মৃত্যু হয়েছে ২৬৫ জনের। এদিন বাগেরহাটে ২ জন, সাতক্ষীরায় ৪ জন, যশোরে ৭ জন, নড়াইলে ৩ জন, ঝিনাইদহে ৪জন, কুষ্টিয়ায় ৭ জন, চুয়াডাঙ্গায় ২ জন ও মেহেরপুরে ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে আজ বৃহষ্পতিবার পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে বাগেরহাটে ৮৭ জন, সাতক্ষীরায় ৭৪ জন, যশোরে ১৫২ জন, নড়াইলে ৪৭ জন,মাগুরায় ২৭ জন, ঝিনাইদহে ৯৪ জন, কুষ্টিয়ায় ২১৮ জন, চুয়াডাঙ্গায় ৯১ জন ও মেহেরপুরে ৫৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।

একই সময়ে খুলনার তিনটি করোনা হাসপাতালে কোভিড পরীক্ষায় ২৪২ জনের পজেটিভ সনাক্ত হয়েছে। এরমধ্যে খুলনা মেডিকেল কলেজ করোনা হাসপাতালে ৩০৫ জন এবং বেসরকারী গাজী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পরীক্ষায় আরও ২৪ জন পজেটিভ সনাক্ত হয়েছে। এছাড়া একই দিনে বাগেরহাটে ১২৩ জন, সাতক্ষীরায় ৫২ জন, যশোরে ১৪২ জন, নড়াইলে ৯২ জন, মাগুরায় ২০ জন, ঝিনাইদহে ৯৭ জন, কুষ্টিয়ায় ৩২৪ জন, চুয়াডাঙ্গায় ৮৬ জন ও মেহেরপুরে ৬৭ জন করোনায় পজেটিভ হিসেবে সনাক্ত হয়েছে। এনিয়ে করোনার শুরু থেকে খুলনায় মোট ১৫ হাজার ৯৪০ জন আক্রান্ত হয়েছেন। আর চিকিৎসায় সুস্থ্য হয়েছেন ১০ হাজার ৯৭৮ জন। এছাড়া বিভাগের বাগেরহাটে ৩ হাজার ৫১৩ জন আক্রান্ত ও চিকিৎসায় সুস্থ্য হয়েছেন ২ হাজার ৪৬৫ জন, সাতক্ষীরায় ৩ হাজার ৪৩৫ জন আক্রান্ত ও চিকিৎসায় সুস্থ্য হয়েছেন ২ হাজার ৫৪৩ জন,যশোরে ১২ হাজার ৫১০ জন আক্রান্ত ও চিকিৎসায় সুস্থ্য হয়েছেন ৭ হাজার ৪৭০ জন, নড়াইলে ২ হাজার ৭৬৪ জন আক্রান্ত ও চিকিৎসায় সুস্থ্য হয়েছেন ২ হাজার ৫৬ জন, মাগুরায় ১ হাজার ৫৮১ জন আক্রান্ত ও চিকিৎসায় সুস্থ্য হয়েছেন ১ হাজার ২৪৭ জন,  ঝিনাইদহে ৪ হাজার ৪৪২ জন আক্রান্ত ও চিকিৎসায় সুস্থ্য হয়েছেন ৩ হাজার ৩৯ জন,  কুষ্টিয়ায় ৮ হাজার ৪৯ জন আক্রান্ত ও চিকিৎসায় সুস্থ্য হয়েছেন ৫ হাজার ৬০৪ জন,  চুয়াডাঙ্গায় ৩ হাজার ৪০৫ জন আক্রান্ত ও চিকিৎসায় সুস্থ্য হয়েছেন ২ হাজার ২৮১ জন  ও মেহেরপুরে ১ হাজার ৮৮১ জন আক্রান্ত ও চিকিৎসায় সুস্থ্য হয়েছেন এক হাজার ২৪৭ জন।

সর্বশেষ - জাতীয়