ঢাকাবুধবার , ১৪ জুলাই ২০২১
  1. অন্য আকাশ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন আদালত
  4. আবোল-তাবোল
  5. উদ্যোক্তা
  6. উপসম্পাদকীয়
  7. এক্সক্লুসিভ
  8. কলাম
  9. ক্যারিয়ার
  10. খেলার মাঠ
  11. গ্যাজেট
  12. জাতীয়
  13. টাকা-আনা-পাই
  14. দেশ পরিবার
  15. দেশ ভাবনা

একটি ফোন কলেই অক্সিজেন সিলিন্ডার পৌঁছে দিচ্ছে এসআরটি শ্রীপুর

আব্দুর রউফ রুবেল, গাজীপুর প্রতিনিধি
জুলাই ১৪, ২০২১ ১০:০২ পূর্বাহ্ণ


চলমান মহামারি নভেল করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে প্রতিদিনই আক্রান্ত এবং মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েই চলছে। হাসপাতাল গুলোতে নেই পর্যাপ্ত অক্সিজেনের ব্যবস্থা। তাছাড়া সারা দেশের ন্যায় বর্তমানে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ গাজীপুর তথা শ্রীপুরে সংক্রমণ প্রতিদিনই বেড়ে চলছে।


যেহেতু বর্তমানে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ  অতিমারী আকার ধারণ করেছে তাই হাসপাতাল গুলোতে অক্সিজেনের পর্যাপ্ততা কমে গেছে ।এমতবস্থায় শ্রীপুর এসআরটির সদস্যরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে করোনা কালে দুস্থ, অসহায় রোগীদের নিজেদের খরচে ফ্রি অক্সিজেন পৌঁছে দিচ্ছে রোগীদের বাড়ি বাড়ি। দিন কিংবা রাত, রোদ কিংবা বৃষ্টি,  চলাচলের রাস্তা খুবই খারাপ তারপরও থেমে নেই তাদের সেবা। ফোন পাওয়ার সাথে সাথেই এসআরটির সদস্যরা ছুটে চলেন অসুস্থ রোগীর বাসায়।যদিও অক্সিজেন সিলিন্ডারের অপ্রতুলতা তারপরও থেমে নেই শ্রীপুর এসআরটি সদস্যরা।
শ্রীপুর এসআরটির সদস্যরা নিজেদের তহবিল আর কিছু মানুষের সহযোগিতায় মাত্র তিনটি সিলিন্ডার দিয়ে চালিয়ে যাচ্ছেন দুস্থ করোনা রোগীদের সেবা। করোনায় সংক্রমিত হয়ে যাদের শ্বাসকষ্ট হয় তাদের জন্য এ সেবাটি দেয়া হয়। এতে যাতায়াত ভাড়া, সিলিন্ডার রিফিল থেকে শুরু করে সব কিছুই ফ্রিতে দেয়া হয়।
ভুক্তভোগী এক রোগীর ছেলে নাজমুল জানান, আমার মায়ের করোনা পজিটিভ হওয়ায় শ্বাস কষ্ট হওয়া শুরু হয়।এদিকে হাসপাতালেও অক্সিজেন সিলিন্ডার না পেয়ে তৎক্ষনাৎ আমরা এসআরটি সদস্যদের ফোন দিলে তারা অতি দ্রুততার সাথে আমার বাড়িতে অক্সিজেনের সিলিন্ডার পৌঁছে দিয়ে আমার মায়ের জীবন বাঁচায়। আমি তাদের জন্য দোয়া করি আল্লাহ তাদের ভালো করুন।আমি তাদের সফলতা কামনা করছি।
আরেক ভুক্তভোগীর ছেলে সোহান জানান, মহামারি করোনার সময়ে এসআরটির অক্সিজেন সিলিন্ডার পেয়ে খুব উপকার হয়েছে।আল্লাহর রহমতে এখন আমার বাবা পুরোপুরি সুস্থ হয়েছে।  আমি তাদের সর্বাঙ্গীণ সফলতা  কামনা করছি।
তাছাড়া করোনাকালে শ্রীপুর এসআরটির উদ্যোগে বিনামূল্যে মাস্ক সরবরাহ করা, প্লাটফর্মে হাত ধোয়া কর্মসূচি পালন করা। যাতে প্রায় ১ লক্ষ মানুষ হাত ধুয়েছে। দুস্থদের ত্রান দেয়া, প্লাটফর্ম, বাজার, হাসপাতাল সহ শ্রীপুরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় জিবানুনাশক স্প্রে করা সহ করোনা মোকাবেলায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে সর্বসাধারণকে সার্বক্ষণিক সচেতন করে যাচ্ছে “শ্রীপুরের স্পেশাল রেসপন্স টিম” যা এসআরটি নামে পরিচিত ।
২০১৯ সালের ১৬ই ডিসেম্বর ২৫ জন সদস্য নিয়ে যাত্রা শুরু করে  শ্রীপুর এসআরটি। প্রতিষ্ঠালগ্ন হতেই সংগঠনটির সদস্যরা শ্রীপুর প্লাটফর্মে অভূতপূর্ব সাফল্য দেখিয়ে কাজ করে আসছে। যাত্রীদের টিকেট কাটতে উৎসাহিত করা, ঝুঁকিপূর্ণ ট্রেন লাইন পারাপারে সাবধান করা, প্লাটফর্মে সুন্দর বাগান করা, মাস্ক পরে ট্রেন চলাচলে প্রচারনা করা, প্লাটফর্মে ভাসমান মানুষকে খাবার এবং আর্থিক সাহায্য করা, প্লাটফর্মে সেফটি লাইন মেনে চলতে যাত্রীদের সচেতন করা সহ বেশ গুরুত্বপূর্ণ কাজে সাহায্য করে যাচ্ছে শ্রীপুর এস আর টি।
শ্রীপুর এসআরটি সদস্য জুবায়ের আহমেদ জানান, করোনার এই সময়ে অক্সিজেন সিলিন্ডার নিয়ে মানুষের পাশে দাঁড়াতে পেরে খুব ভালো লাগছে। এসআরটির সদস্যরা যখনই ফোন আসছে আমাদের কাছে অক্সিজেন সিলিন্ডার থাকা সাপেক্ষে তা নিয়ে  ছুটে যাচ্ছে রোগীর বাড়িতে। এসআরটির প্রত্যেকটা সদস্যই এই করোনাকালীন সময়ে যে যেভাবে পারছে অসহায় এবং দুস্থদের পাশে দাড়ানোর চেষ্টা করছে।করোনার এই সময়ে সমাজের বিত্তশালীদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।
 শ্রীপুর এসআরটির এরিয়া কমান্ডেন্ট এবং গাজীপুর ঢাকা ট্রেন প্যাসেঞ্জারস ফোরামের এডমিন তুহিন আহমেদ জানান, করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের প্রকোপ দিন দিন বাড়ছে যার প্রভাব আমাদের শ্রীপুরেও পরেছে। ইতিমধ্যে হাসপাতালগুলোতে অক্সিজেনের স্বল্পতা দেখা দিয়েছে। তাই আমাদের এসআরটির নিজস্ব তহবিল এবং কিছু মানুষের সহযোগিতায় আমরা কিছু সিলিন্ডার নিয়ে বিনামূল্যে অসহায় এবং দুস্থ রোগীদের সরবরাহ করছি। প্রতিদিনই আমাদের কাছে বেশ কিছু কল আসে অক্সিজেন সিলিন্ডারের জন্য কিন্তু আমাদের কাছে যে কয়টা সিলিন্ডার আছে তা দিয়ে আমরা সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছি।যদি  সমাজের বিত্তবানরা এগিয়ে আসে তাহলে আমাদের সেবার পরিধি বাড়ানো যাবে।তাছাড়া সকল বিত্তশালীদের এইসব দুস্থ অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানো উচিত ।তবে আমাদের যা আছে তা দিয়েই আমাদের এই চলমান সেবা চালিয়ে যাবো।

সর্বশেষ - জাতীয়