ঢাকাবৃহস্পতিবার , ৮ জুলাই ২০২১
  1. অন্য আকাশ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন আদালত
  4. আবোল-তাবোল
  5. উদ্যোক্তা
  6. উপসম্পাদকীয়
  7. এক্সক্লুসিভ
  8. কলাম
  9. ক্যারিয়ার
  10. খেলার মাঠ
  11. গ্যাজেট
  12. জাতীয়
  13. টাকা-আনা-পাই
  14. দেশ পরিবার
  15. দেশ ভাবনা

‘অনেক অস্বস্তি নিয়ে বিএনপিতে টিকে আছি’, জানালেন হাফিজ

নুসাইবা হাসান ইলোরা
জুলাই ৮, ২০২১ ১:২৬ অপরাহ্ণ


অনেক অস্বস্তি নিয়ে বিএনপিতে এখনো টিকে আছি বলে মন্তব্য করেছেন দলটির ভাইস চেয়ারম্যান ও জেড ফোর্সের অন্যতম সেনা কর্মকর্তা মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ বীর বিক্রম।


বিএনপির স্বাধীনতা সূবর্ণ জয়ন্তী মুক্তিযোদ্ধাদের সন্মাননা কমিটির উদ্যোগে ‘একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে মুক্তিবাহিনীর জেড ফোর্স গঠন উপলক্ষে’ আয়োজিত এক ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় গতকাল তিনি এ কথা জানান।

বিএনপিতে জেড ফোর্সে সমরনায়কদের সংখ্যা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, জেড ফোর্সে সমরনায়কদের মধ্যে, সেনা কর্মকর্তাদের মধ্যে চার জন বিএনপিতে ছিলেন। একজন কর্ণেল আকবর হোসেন, তিনি পৃথিবী থেকে বিদায় নিয়েছেন, অন্য দুই জন কর্ণেল অলি আহমেদ ও মেজর শমসের মবিন চৌধুরী-তারা অন্য দলে চলে গিয়েছেন। আমি একমাত্র কোনো ক্রমে অনেক অস্বস্তি নিয়ে এখনো টিকে আছি।

ময়মনসিংহ, জামালপুর, সিলেট অঞ্চলে পাকিস্তানি বাহিনীর ওপর জেড ফোর্সের বিভিন্ন অভিযানের ঘটনা তুলে ধরেন হাফিজ উদ্দিন আহমেদ বলেন, প্রথম, তৃতীয় ইষ্ট বেঙ্গল ও অষ্টম ইষ্ট বেঙ্গলের ব্যাটেলিয়ানকে নিয়ে ১৯৭১ সালের জুন মাসে নির্দেশ দেয়া হয় বাংলাদেশ স্বশস্ত্র বাহিনীর প্রথম বিগ্রেড জেড ফোর্স গঠন করার জন্য। এই তিনটি ব্যাটেলিয়ানে সদ্য নিয়োগপ্রাপ্ত রিক্রুট ছাত্ররা রয়েছে, যাদের কোনো সামরিক ট্রেনিং নাই। এদেরকে ট্রেনিং দেয়ার জন্য নিয়ে আসা হলো মেঘালয়ের তুরাগ থেকে ২০ মাইল উত্তরে তেলঢালা নামক জায়গায়। তেলঢালা ছিলো একটি ঘন বনাঞ্চল উঁচু পাহাড়ে ঘেরা। এখানে জেড ফোর্সের গোড়াপত্তন করা হয়। জুলাই মাসের শেষ দিকে এসে যোগদান জেড ফোর্সের কমান্ডার জিয়াউর রহমান। তিনি এসে দেখতে পান আমরা নতুনদের ট্রেনিং দিচ্ছি। তিনি এই ট্রেনিংয়ের তত্বাবধায়ন করেন।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, দুঃখের বিষয় আমরা যারা বিএনপি করি, আমরা নিজেরাই জানি না- সিলেটে কোথায় যুদ্ধ হয়েছে। আমি সিলেটের নেতৃবৃন্দকে জিজ্ঞাসা করেছি, তারাও বলতে পারেননি। এই হলো বাস্তবতা। আর যখন আমরা ক্ষমতায় থাকি তখন আমরা জীবিত নেতাদের তোষামদে ব্যস্ত থাকি। যখন ক্ষমতায় থাকি তখন জেড ফোর্সে নামও শোনা যায় না। এখন কিছুটা শুনতে পারছি, সেজন্য দলের স্বাধীনতা সূবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন কমিটিতে ধন্যবাদ জানাতে চাই।

জিয়াউর রহমানকে আমরা সবাই একজন মহান রাষ্ট্রপতি রূপে জানি উল্লেখ করে মেজর হাফিজ বলেন, জিয়াউর রহমান যে কত কৌশলী সমরনায়ক ছিলেন, মুক্তিযুদ্ধের সামরিক অঙ্গনে তিনি যে একজন তেজদীপ্ত একজন কমান্ডার ছিলেন। আজকে বিনা ভোটের এই সরকারের কারণে ক্রমাগতভাবে সেই ইতিহাস বিকৃত হয়েছে। আমি গভীর শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করি আমার কমান্ডার শহীদ জিয়াউর রহমানকে।

সর্বশেষ - জাতীয়